কৌশিকী অমাবস্যায় বন্ধ তারাপীঠ

141

রামপুরহাট: সোমবার কৌশিকী অমাবস্যা। করোনা আবহে এর আগেই কৌশিকী অমাবস্যায় পুণ্যার্থীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন। এরপরও বিহার, ঝাড়খণ্ড থেকে পুণ্যার্থীরা তারাপীঠে পুজো দিতে এসে একরাশ অভিমান নিয়ে ফিরে যান।

কৌশিকী অমাবস্যা তারাপীঠে একটি বিশেষ দিন। বছরের এইদিনটির জন্য বহু মানুষ অপেক্ষা করে থাকেন। এই দিনে মা তারার পুজো দিলে পুণ্যলাভ হয় বলে বিশ্বাস। সেই বিশ্বাস থেকেই প্রতি বছর দেশের বিভিন্ন জায়গা থেকে বহু মানুষ পুজো দিতে তারাপীঠে আসেন। কিন্তু করোনা অতিমারির কারণে গত বছর থেকে এই বিশেষ দিনে সেখানে পুণ্যার্থীদের প্রবেশে নিষেধজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন।

- Advertisement -

এদিন থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত কৌশিকী অমাবস্যা। তাই আগামী ৩-৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত পুণ্যার্থীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে প্রশাসন। বিহার ও ঝাড়খণ্ডের মানুষের কাছে সেই বার্তা পৌঁছে দিতে সীমান্তের রাজ্যের প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক করে বীরভূম জেলা প্রশাসন। সেই মতো রবিবার বিকেল থেকে তারাপীঠ ঢোকার সব রাস্তার মুখে গাড়ি, মোটরবাইক আরোহীদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। কথাবার্তা সন্তোষজনক হলে তবেই প্রবেশের অনুমতি মিলছে। বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে তারাপীঠের সমস্ত লজ। ফলে চাপ বাড়ছে রামপুরহাটের।

এদিকে ওই দুই রাজ্যে প্রচারের অভাবে বহু মানুষ এসে হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছেন। এদিন সকালে মা তারার মঙ্গলারতির পর শীতলভোগ দেওয়া হয়। তিথি নক্ষত্র মেনে সকাল ৭টা ৭ মিনিটে শুরু হয় অমাবস্যার পুজো। মন্দির কমিটির সম্পাদক ধ্রুব চট্টোপাধ্যায় জানান, প্রশাসনের নির্দেশ মেনে পুণ্যার্থীদের প্রবেশ বন্ধ করা হয়েছে। মন্দির চত্বরে জায়েন্ট স্ক্রিন বসানো হয়েছে। সেখান থেকেই সেবাইতরা অনলাইনে মায়ের দর্শন করাবেন।