জন্মদিনে রক্ত দান শিক্ষকের, প্রাণে বাঁচলেন মুমূর্ষ রোগী

127

চাঁচল: ক’দিন বাদেই বিয়ে। বাড়িতে চলছে শেষ মুহূর্তের কাজ। নাওয়া-খাওয়ার সময় নেই স্কুল শিক্ষক শফিকুল আলমের। যদিও সবকিছু উপেক্ষা করেই বন্ধুর বাইকে চেপে ৬ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে পৌঁছোলেন চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে। রক্তদান করলেন। প্রাণ বাঁচল এক মুমূর্ষ রোগীর।

হরিশ্চন্দ্রপুরের কনুুুয়া রহমতপুুর এলাকার বাসিন্দা শফিকুল আলম পেশায় শিক্ষক হলেও সাংবাদিকতার পেশার সঙ্গেও যুক্ত রয়েছেন তিনি। সামনের মাসের ১০ তারিখে তাঁর বিয়ে। তাই চূড়ান্ত ব্যস্ততার মধ্যে দিয়ে দিন কাটছে তাঁর। অন্যদিকে, আজ তাঁর জন্মদিন হওয়ায় সোশ্যাল মিডিয়ায় শুভেচ্ছার ঝড় ওঠে। সেসবে নজর দিতে গিয়েই তার নজরে আসে রক্ত সংকটে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন এক মহিলা। পরিবারের তরফে রক্তের জন্য কাতর আর্তি জানিয়েছেন। বিষয়টি নজরে আসতেই রক্তদানের বিষয়ে দ্বিতীয়বার ভাবেননি তিনি। ঘটনায় আপ্লুত রোগীর পরিজনেরা।

- Advertisement -

তিনি জানান, প্রতিবছর নিজেদের জন্মদিনে তার বন্ধুরা যখন সবাই পার্টি করে তখন নিয়ম মেনে চাঁচল ব্লাড ব্যাংকে রক্তদান করেন। এবছরও তার অন্যথা হল না। রক্তদানের মাধ্যমে এক রোগীর প্রাণ বাঁচাতে পেরে তিনি আপ্লুত।