দুঃস্থদের সাহায্যার্থে প্রতি মাসের বেতনের ২০ শতাংশ দেবেন শিক্ষক

179

রায়গঞ্জ: করোনা পরিস্থিতিতে দুঃস্থদের সাহায্যার্থে এগিয়ে এলেন রায়গঞ্জের এক শিক্ষক। লকডাউন আর করোনার কারণে  দুবেলা দুমুঠো ভাতের জোগাড় করতে অনেকেরই নাভিশ্বাস হয়ে উঠছে। এই সমস্ত মানুষের হাতে খাবার এবং চিকিৎসা সরঞ্জাম ও ওষুধপত্র তুলে দিতে প্রতি মাসে বেতনের ২০ শতাংশ টাকা খরচ করবেন দেবীনগর মহারাজা জগদীশনাথ হাই স্কুলের শিক্ষক মৃনাল সিংহ। ইতিমধ্যে তিনি এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাকে একটি অক্সিজেন সিলিন্ডার দিয়েছেন। পাশাপাশি যে সমস্ত স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা দুঃস্থ মানুষের খাবার ব্যবস্থা করেছে এবং চিকিৎসার জন্য পাশে গিয়ে দাঁড়িয়েছে তাঁদেরকেও আর্থিক সাহায্য করছেন তিনি।

রায়গঞ্জ শহরের বীরনগরের বাসিন্দা মৃনাল সিংহ। গত ২০১৭ সালে বন্যার সময় অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলেন তিনি। এরপর নিয়মিত রক্তদানের পাশাপাশি নানা সমাজকল্যানমূলক কাজ করেছেন। গতবছর করোনা পরিস্থিতিতেও যথাসাধ্য পাশে থাকার চেষ্টা করেছেন। এবারও তার অন্যথা হয়নি, নিজের বেতনের ২০ শতাংশ গরীব মানুষের জন্য খরচের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি।

- Advertisement -

মৃনালবাবু বলেন, ‘স্কুল খুললেও ভোটের কারণে আমাদের স্কুল সেনাবাহিনী নিয়ে নেয়। শহরের অন্য স্কুলগুলিতে পঠনপাঠন হলেও আমরা সেই সুযোগ পাইনি। ফলে মানসিকভাবে ভালো নেই আমরা অনেকেই। এভাবে মাসের পর মাস ঘরে বসে বেতন নিতে আর মন চাইছে না। তাই গরীব মানুষের কথা ভেবে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তাই যতদিন স্কুল বন্ধ থাকবে ততদিন বেতনের ২০ শতাংশ অর্থ খরচ করব সামাজিক কাজে।‘

মৃনালবাবুর এই প্রয়াসকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা। কৌশিক ভট্টাচার্য্য, কৌশিক চক্রবর্তী সহ আরও অনেকেই জানান, মৃনালবাবুর মতো যদি অনেকেই এগিয়ে আসেন তাহলে কাজ করতে সবারই সুবিধা হবে।