প্রার্থীর প্রচারে প্রাথমিক শিক্ষকদের মাঠে নামাল তৃণমূল

200

হলদিবাড়ি: হাতে গোনা ক’দিন বাদেই মেখলিগঞ্জ বিধানসভা আসনের নির্বাচন। তার আগে জোরকদমে প্রচার শুরু করেছে শাসকদল তৃণমূল। অন্যদিকে, বিরোধীরাও কোমর বেঁধে নেমেছে তাঁদের প্রচারে। করোনার জেরে আজও বন্ধ রয়েছে প্রাথমিক বিদ্যালয়, কর্মহীন শিক্ষকরা। তাই নিজেদের প্রার্থীর প্রচারে প্রাথমিক শিক্ষকদের মাঠে নামিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। সোমবার সকাল থেকে হলদিবাড়ি শহরের বাড়ি বাড়ি ঘুরে তৃণমূলের প্রার্থী পরেশচন্দ্র অধিকারীর জন্য প্রচারে নামলেন ব্লকের শিক্ষকরা।

ভোটের মুখে বাড়ি বাড়ি গিয়ে তৃণমূলের শাসনকালের উন্নয়নের ফিরিস্তি তুলে ধরে দলীয় প্রার্থীর সমর্থনে প্রচার কর্মসূচি শুরু করল তৃণমূল কংগ্রেস সমর্থিত শিক্ষক সংগঠন পশ্চিমবঙ্গ তৃণমূল প্রাথমিক শিক্ষক সমিতি। প্রচারের নেতৃত্বে ছিলেন সমিতির হলদিবাড়ি ব্লক কমিটির সভাপতি তমালরঞ্জন রায়, সহ সভাপতি পার্থসারথী দত্ত ও কল্যাণ সরকার, সম্পাদক অমিতাভ দাস ও অভিজিৎ রায়, কোষাধ্যক্ষ দিবাকর ঘোষ প্রমুখ।

- Advertisement -

সংগঠনের সভাপতি তমালরঞ্জন রায় বলেন, ‘ভোট প্রচারের পাশাপাশি বিগত দশ বছরে রাজ্যের উন্নয়ন ও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের জনকল্যাণমূলক প্রকল্পগুলি সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে একটি পুস্তিকা মানুষের হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে।’ সহ সভাপতি পার্থসারথী দত্ত বলেন, ‘এদিন হলদিবাড়ি শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের উত্তর পাড়ার বাড়ি বাড়ি প্রচার চালানো হয়। এছাড়াও পথ চলতি মানুষের মধ্যেও ওই পুস্তিকা বিতরণ করা হয়।’

দলীয় সূত্রে খবর, ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের পরামর্শে এই অভিযান শুরু হচ্ছে। দলের আশা, শিক্ষকদের সামনে রাখা গেলে তাঁদের সামাজিক প্রভাব রাজনীতির লড়াইয়ে বিশেষ কাজে আসবে।

তৃণমূলের ব্লক সভাপতি অমিতাভ বিশ্বাস বলেন, ‘বাম আমলে আমরা দেখেছি এবং জেনেছি শিক্ষকরা বামেদের রাজত্বে ভোট প্রচারে গুরুত্ব সহকারে অংশগ্রহণ করতেন ও দলের হয়ে ধারাবাহিক কাজ করে যেতেন। আমাদের সরকারের আমলেও শিক্ষকদের সেই রকম একটা দায়িত্ব পালন করার কাজে নামানো হয়েছে।’