মৃতদেহ থেকে সোনার হার চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্য

72

রায়গঞ্জ: মৃতদেহ থেকে সোনার হার চুরির ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের জরুরি বিভাগে। ভোররাত পর্যন্ত মৃতের পরিবারের লোকেরা বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। খবর পেয়ে রায়গঞ্জ থানার বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। মৃতের পরিবারের তরফে থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখে অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার চেষ্টা করছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।

পুলিশ ও পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, গতকাল রাতে হৃদরোগে আক্রান্ত হন রায়গঞ্জের নেতাজিপল্লির বাসিন্দা কাঞ্চন সরকার (৬৫)। আশঙ্কাজনক অবস্থায় তাঁকে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত বলে ঘোষণা করেন। এরপর পরিবারের লোকেরা জরুরি বিভাগের চিকিৎসকের কাছে কথা বলতে যান। সেখান থেকে ফিরে এসে দেখেন মৃত কাঞ্চনবাবুর গলার সোনার হার নেই। এরপরই মৃতের পরিবারের লোকেরা বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পাশাপাশি মৃতের পরিবারের অভিযোগ খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন।

- Advertisement -

জরুরি বিভাগের চিকিৎসকের বক্তব্য, কাঞ্চনবাবুকে জরুরি বিভাগে নিয়ে আসলে দীর্ঘক্ষণ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার পর তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করা হয়। সম্ভবত হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ওই ব্যক্তির। পরিবারের লোকেরা মৃতদেহের গলা থেকে সোনার হার চুরির বিষয়টি বলতে এসেছিলেন। সমস্ত বিষয় ঊর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রায়গঞ্জ থানার পুলিশ।এই বিষয়ে রায়গঞ্জ মেডিকেলের সহকারি অধ্যক্ষ প্রিয়ঙ্কর রায় জানান, পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে। জেলা পুলিশ সুপার সুমিত কুমার জানান, রায়গঞ্জ থানার পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। রায়গঞ্জ থানার পুলিশ আধিকারিকের বক্তব্য, সিসি ক্যামেরার ফুটেজ নেওয়া হয়েছে। তদন্ত চলছে।