বিজেপির বনধকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র বক্সিরহাট

1494

তুফানগঞ্জ: বিজেপির বুথ সভাপতি কালাচাঁদ কর্মকারের মৃত্যুর প্রতিবাদে তুফানগঞ্জ মহকুমা জুড়ে বিজেপির বনধকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র চেহারা নিল বক্সিরহাটের জোড়াই মোড় ও বাকলা। বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় আহত হয়েছেন বেশ কয়েকজন পুলিশকর্মী। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। ঘটনাস্থল থেকে তৃণমূল ও বিজেপির ২৩ জনকে আটক করা হয়েছে বলে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে।

এদিন সকালে বক্সিরহাটের অন্যান্য এলাকার মতো বক্সিরহাট জোড়াইমোড় বাজারের দোকানপাট বন্ধ ছিল। তৃণমূল নেতা সুজিত ঘোষের নেতৃত্বে তৃণমুল কর্মীরা দলীয় দপ্তরে জমায়েত হন ও দোকানগুলি খুলে দেন। অপরদিকে, বিজেপি কর্মীরাও তাদের দলীয় দপ্তরের সামনে জমায়েত হন। জানা গিয়েছে, এর কিছুক্ষণ বাদে বক্সিরহাট থেকে বিজেপির তুফানগঞ্জ বিধানসভা আসনের কো কনভেনার বিমল পালের নেতৃত্বে একটি বাইক মিছিল সেখানে পৌঁছোলে দুই দলের তরফে ইট, পাটকেল ছোঁড়া হয় বলে অভিযোগ। এতে বিমল পাল সহ বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে বিমল পাল সহ আরও এক বিজেপি কর্মী তুফানগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। এদিন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ লাঠিচার্জ করে দু’পক্ষকে সরিয়ে দেয়। ইট-পাটকেলের আঘাতে বক্সিরহাট থানার পুলিশের এসআই আসরফ আলি সহ সাত পুলিশ কর্মী আহত হয়েছেন বলে বক্সিরহাট থানার ওসি অ্যান্থনী হোড়া জানিয়েছেন।

- Advertisement -

অন্যদিকে, এই ঘটনার কিছুক্ষণ পর বাকলা বাজার থেকে টাকোয়ামারি যাওয়ার রাস্তায় বিজেপি টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ ও মিছিল করে। পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনায় এক বনধ সমর্থনকারীকে বাইক সহ আটক করে পুলিশ। পাশাপাশি পুলিশ মিছিল সমর্থনকারীদের একাংশের উপর লাঠিচার্জ করে ও বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়।

বিজেপির বনধকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র বক্সিরহাট| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

বিজেপির তুফানগঞ্জ বিধানসভা আসনের সংযোজক উৎপল দাস জানান, পুলিশ নিরীহ বনধ সমর্থনকারীদের ওপর অন্যায় ভাবে লাঠি চার্জ করেছে। এদিন বনধের সমর্থনে তুফানগঞ্জে একটি প্রতিবাদ মিছিল বের করে বিজেপি। মিছিলে নেতৃত্ব দেন ভারতীয় জনতা যুব মোর্চার জেলা সভাপতি অজয় সাহা, বিজেপির জেলা সহ সভাপতি শিখা বসাক মিত সহ অন্যরা। তুফানগঞ্জ থানার অন্তর্গত ছাট রামপুর ও চিলাখানায় বিজেপি ও তৃণমূল কর্মীরা জামায়েত করেন। তবে পুলিশের উপস্থিতিতে কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। দুটি এলাকাতেই পুলিশ অন্যায়ভাবে তাদের মিছিলে তৃণমূলের প্ররোচনায় লাঠি চালায় ও তাদের দলীয় দপ্তরে ভাঙচুর করে বলে অভিযোগ। এছাড়া তাদের ৩২ জন কর্মীকে ধরে নিয়ে যায় বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে বক্সিরহাট থানার ওসি জানান, এদিন দুটি জায়গা থেকে ২৩ জনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে এলাকা পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

বিজেপির বনধকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র বক্সিরহাট| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

এদিকে কালাচাঁদ কর্মকারের মৃত্যুর ঘটনায় ধৃত কমল বর্মনকে আদালতে তোলা হলে বিচারক তাকে পাঁচদিনের পুলিশ হেপাজতের নির্দেশ দিয়েছেন। এই বিষয়ে তৃণমুলের ভানুকুমারি ২ অঞ্চলের আহ্বায়ক সুজিত ঘোষ জানান, এদিন তাদের কেউ হতাহত হননি এবং গ্রেপ্তারও হননি। এদিন বিজেপির ডাকা বনধে মহকুমাজুড়েই প্রভাব পড়েছে। দোকানপাট বন্ধ ছিল। রাস্তায় যানবাহনও সেভাবে দেখা যায়নি।