মুর্শিদাবাদ, ১০ মেঃ বৃহস্পতিবার মাঝরাত থেকে ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল মুর্শিদাবাদের গোয়ালজান। ঘটনায় নিত্য এবং জয়ন্ত নামে তৃণমূলের দুই নেতা দুষ্কৃতীদের নিয়ে সেখানে হামলা চালায় বলে অভিযোগ। বোমার আঘাতে জখম হন রাজীব হালদার নামে এক ব্যক্তি। যদিও ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

উল্লেখ্য, বিয়ে বাড়িতে নিমন্ত্রণ খেতে গিয়ে ইয়ারকির ছলে ‘জয় শ্রী রাম’ বলায় রানা স্বর্ণকার এবং জয় হালদার নামে দুই যুবককে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের ওই দুই নেতার বিরুদ্ধে। ঘটনার খবর প্রকাশ্যে আসতেই প্রতিবাদে সরব হন স্থানীয়রা। গতকাল রাতে ওই দুই তৃণমূল নেতা এলাকায় কয়েকজন দুষ্কৃতীদের নিয়ে বোমাবাজি করে এবং কয়েক রাউন্ড গুলিও চালায় বলে অভিযোগ। এমনকি বিষয়টি পুলিশ এবং সংবাদ মাধ্যমকে কেন জানানো হয়েছে তা নিয়েও ভয় দেখানো হয়। এই বিষয়ে তৃণমূলের জেলা মুখপাত্র অশোক দাস জানান, ‘বিজেপি প্রচারের আলোয় আসার জন্য এই ধরনের ঘটনা এলাকায় ঘটিয়ে আমাদের দলকে কালিমালিপ্ত করতে চাইছে। এই ঘটনার সঙ্গে আমাদের দলের কেউ যুক্ত নেই’। এই বিষয়ে বিজেপি-র দক্ষিণ মুর্শিদাবাদের সভাপতি গৌরি শংকর ঘোষ জানান, ‘আমাদের দল এই ধরনের দুষ্কৃতীদের সমর্থন করে না। আর কোনোভাবে প্রচারের আলোতে আসার জন্য এই ধরনের নোংরা কাজ করার দরকার হয় না। সাধারণ মানুষ আমাদের সঙ্গে আছেন।’ এই বিষয়ে বহরমপুর থানার আইসি সনৎ দাস জানান, ‘ঘটনার লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। খবর পেয়ে সেখানে বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। সেই সঙ্গে এলাকায় পুলিশ ক্যাম্পও বসানো হয়েছে। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি।’