রায়গঞ্জ, ৯ সেপ্টেম্বরঃ ডিওয়াইএফআইয়ের ডেপুটেশনকে কেন্দ্র করে সোমবার ধুন্ধুমার কাণ্ড বাধল কর্ণজোড়ার জেলাশাসক ক্যাম্পাসে। এদিন কম খরচে পড়ুক সবাই, রাজ্যের শিল্প চাই, বেকারদের বেকার ভাতা চাই, ইসলামপুর মহিলা কলেজ, গোয়ালপোখর উর্দু কলেজ, ধনতলায় চর্ম শিল্প, শ্রীকৃষ্ণপুরে ফল প্রক্রিয়াকরণ শিল্প বাস্তবায়ন, ১০০ দিনের কাজের দুর্নীতি বন্ধ সহ বিভিন্ন দাবিতে জেলাশাসককে ডেপুটেশন দিতে যান ডিওয়াইএফআইয়ের নেতা-কর্মীরা। ডেপুটেশন কর্মসূচিতে প্রতিনিধিত্ব করেন ডিওয়াইএফআইয়ের জেলা সম্পাদক কার্তিক দাস, এসএফআই জেলা সম্পাদক গোপাল দাস, ইন্দ্র বর্মন সরদার, হান্নান আলি সরদার, কুশল ভৌমিক, অতনু চ্যাটার্জী। জানা গিয়েছে, রায়গঞ্জের বোগ্রাম থেকে মিছিল শুরু হয়ে জেলাশাসকের অফিসের সামনে আসতেই ব্যারিকেড ভেঙে ঢোকার চেষ্টা করে ডিওয়াইএফআইয়ের নেতাকর্মীরা। প্রথম গেটে ব্যারিকেড ভেঙে দিলেও দ্বিতীয় গেটে পুলিশি তৎপরতায় আটকে দেওয়া হয় তাঁদের। ডিওয়াইএফআইয়ের নেতা প্রাণেশ সরকার বলেন, ‘রাজ্য জুড়েই আমাদের এই ডেপুটেশন কর্মসূচি চলছে। উত্তর দিনাজপুর জেলায় জেলাশাসক দপ্তরেও ডেপুটেশন কর্মসূচি ছিল।’ ব্যারিকেড ভাঙা প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘সামান্য ধাক্কাধাক্কি হয়েছে। দলের নেতা-কর্মী-সমর্থকরা ব্যারিকেড ভাঙেনি।’