বিজেপির ‘পরিবর্তন যাত্রা’ ঘিরে উত্তেজনা বেলডাঙায়

70
প্রতীকী ছবি

কলকাতা: বিজেপির ‘পরিবর্তন যাত্রা’কে কেন্দ্র করে রীতিমতো উত্তেজনা ছড়াল মুর্শিদাবাদের বেলডাঙায়। বেলডাঙ্গায় গেরুয়া শিবিরের ‘পরিবর্তন যাত্রা’ আটকে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে স্থানীয় পুলিশ ও প্রশাসনের বিরুদ্ধে। যদিও নিজেদের নির্ধারিত রুটেই যেতে অনড় ছিলেন বিজেপি নেতারা। এরপরেই পুলিশের সঙ্গে  বচসা বাধে বিজেপি নেতা এবং কর্মীদের। বিজেপি কর্মীদের দাবি, রাজনৈতিক কারণেই তাঁদের রথযাত্রা আটকানো হয়েছে।
এদিন সকালে পুলিশ বিজেপির প্রস্তাবিত রুটে রথযাত্রা করতে না করে দেয়। জানা যায়, ওই রাস্তায় অশান্তির আশঙ্কা করেছিল পুলিশ। তাদের বিকল্প রুটে জাওয়ার কথা বললেও সেখান দিয়ে রথ নিয়ে যেতে অস্বীকার করে বিজেপি। এই বিষয়ে বিজেপির মুখপাত্র শমীক ভট্টাচার্য জানান, আগেই পুলিশকে রুট জানানো হয়েছিল। তারপরেও রথ আটকানো হয়েছে। তবে আগে পুলিশের অনুমতি মিলেছিল কিনা, তা নিয়ে স্পষ্ট কিছু জানাননি তিনি। তৃণমূল কংগ্রেসের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ জানান, নির্দিষ্ট কারণেই রথ আটকানো হয়েছে। তবে রথযাত্রা নয়, বিজেপির যাত্রাপালা হচ্ছে। দিল্লির সীমান্তে যথন বিক্ষোভরত কৃষকদের সঙ্গে তৃণমূলের প্রতিনিধিদল যাচ্ছিল, তখন কেন তাঁদের আটকানো হয়েছিল?
পুলিশ সূত্রে খবর, বিজেপিকে আগেই জানানো হয়েছিল ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের বেলডাঙা থেকে বহরমপুর পর্যন্ত রথযাত্রা করা যাবে। এছাড়া অন্য কোনও রাস্তা ব্যবহার করা যাবে না। কিন্তু পুলিশের নির্দেশে না মেনে বিজেপি তাদের নির্ধারিত রুটেই রথযাত্রা শুরু করে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার নবদ্বীপ থেকে ‘পরিবর্তন যাত্রা’-র সূচনা করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নড্ডা। রাজ্যের ৫টি জোনে ওই কর্মসূচি চালানোর জন্য নবান্নে আবেদন জানিয়েছিল বিজেপি। তবে নবান্নের তরফে জানানো হয়েছিল এই বিষয়ে সমস্ত অনুমোদন দেবে স্থানীয় প্রশাসনই।

- Advertisement -