১ টাকায় ভরপেট খাওয়ারের আয়োজন চাঁচলে

150

চাঁচল: পাতে ছিল ভাত, সোয়াবিন সহ ডিম ও পাপড় ভাজা। এক টাকায় ভরপেট খাওয়ার আয়োজন চাঁচলে। শুক্রবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হল এই কর্মসূচি। শুধুমাত্র চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আসা রোগীর আত্মীয়রা এই খাবারের সুযোগ পাবেন। এদিন চাঁচলের যুব শক্তি নামক একটি সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপের উদ‍্যোগে এই কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

বর্তমানে লকডাউনে শহরে বন্ধ হোটেল। চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে আসা রোগীর পরিজনদের কার্যত অনাহারেই থাকতে হত। এই সমস‍্যা দেখে এক মানবিক উদ‍্যোগ নিল চাঁচলের ‘যুবশক্তি’ নামক এক সোশ্যাল মিডিয়া গ্রুপ। লকডাউনে রোগীর পরিজনদের ১ টাকায় ভরপেট খাওয়ানোর উদ‍্যোগ নিল যুবকরা। এদিন চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের সামনে বটগাছের নীচে শিবির করা হয়। সামাজিক দুরত্ব ও সমস্তরকম করোনাবিধি বজায় রেখে এদিনের কর্মসূচি পালন করা হয়। চাঁচল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালের সুপার ডাঃ লায়েক আলি জার্দারি, সঞ্জয় পাল সহ চাঁচলের বাসিন্দারা এই সংকট কালে যুবশক্তির এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।

- Advertisement -

যুবশক্তি গ্রুপের সদস্য বাবু সরকার জানান, আপাতত এদিন থেকে কর্মসূচি শুরু হলেও রাজ‍্য সরকার যতদিন লকডাউন ঘোষণা করেছেন ততদিন এই ভরপেট খাওয়ার চলবে। এদিন প্রায় দেড়শো জনকে খাওয়ার দেওয়া হয়েছে। তবে, রোজ প্রস্তুত খাদ‍্যের তালিকা বদল হবে। গ্রুপের আরও এক সদস‍্য ইমরান খান বলেন, ‘আমাদের গ্রুপে কেউ ব‍্যবসায়ী, চাকুরীজীবি ও ছাত্ররাও রয়েছে। সবাই ঐক্যবদ্ধ হয়ে চাঁদা তুলেই এক কর্মসূচি গ্রহন করতে সক্ষম হয়েছি।‘

রোগীর পরিজন তথা হরিশ্চন্দ্রপুরের বাসিন্দা ভরতকুমার দাস বলেন, ‘কাল থেকে হাসপাতালের বাইরে রয়েছি। স্ত্রী খুব অসুস্থ। এদিন দুপুরের খাওয়ার পেয়ে খুশি।‘