মুখ্যমন্ত্রীকে বিন তুঘলকের সঙ্গে তুলনা বিজেপি নেত্রীর

126

আসানসোল: দেশের চার জায়গায় রাজধানীর দাবি করায় মুখ্যমন্ত্রীকে মহম্মদ বিন তুঘলকের সঙ্গে তুলনা করলেন বিজেপি নেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। এদিন তিনি জয় শ্রীরাম স্লোগান প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়াকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘আমরা তো শুনেছি জয় শ্রীরাম শুনলে ভূত পেত্নীরা ভয় পায়। ওনার তো ভয় পাওয়ার কথা নয়। তাহলে উনি ভয় পাচ্ছেন কেন?’ রবিবার আসানসোলের রানিগঞ্জে এই ভাষাতেই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কটাক্ষ করলেন বিজেপি মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল। এদিন সকালে আসানসোলে ২নং জাতীয় সড়ক লাগোয়া কাল্লামোড়ে জেলা বিজেপির কার্যালয়ে জেলার সবকটি বিধানসভার মণ্ডলের নেত্রীদের সঙ্গে সাংগঠনিক বৈঠক করেন অগ্নিমিত্রা পাল।

এরপর রবিবার দুপুরে রাজ্য মহিলা মোর্চা রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পাল মধ্যাহ্নভোজন করেন আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের আমড়াসোতা গ্রাম পঞ্চায়েতের বাঁশরা এলাকার বিজেপির এক মহিলা নেত্রীর বাড়িতে। এদিন আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি ৪ নম্বর মণ্ডলের পক্ষ থেকে আয়োজিত এই কর্মসূচিতে হাজির হয়ে অগ্নিমিত্রা পাল দাবি করে বলেন, ‘রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী গত ১০ বছরে নানা ভাবে সরকারি মঞ্চকে ব্যবহার করেছেন নিজের রাজনৈতিক কাজে। এমনকি তিনি নিজের দলীয় কার্যালয়কে ব্যবহার করেছেন সরকারি দপ্তর হিসেবে।’ তার কথায়, দেশের প্রধানমন্ত্রীকে অপমানজনক কথাবার্তা আগেও বলেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।আর নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর ১২৫তম জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে একইভাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে অপমান করেছেন তিনি। সব থেকে বড় কথা নেতাজিকেও অপমান করেছেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বলেই দাবি করেন অগ্নিমিত্রা পাল। এদিন তিনি দেশে চার জায়গায় রাজধানী করার কথা বলায় মুখ্যমন্ত্রীকে মহম্মদ-বিন-তুঘলকের সঙ্গে তুলনা করেন। অগ্নিমিত্রা বলেন, ‘মুখ্যমন্ত্রী মহম্মদ-বিন-তুঘলকের ছোট সংস্করণ। ভারত মাতাকি জয় ও জয় শ্রীরাম স্লোগান শুনে কারোর যদি অসম্মান মনে হয়, তার তো ভারতেই থাকার কোন অধিকার নেই।’

- Advertisement -