শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত নথি হাইকোর্টে জমা দিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ

80

কলকাতা: প্রাথমিকে ৪২ হাজারেরও বেশি শিক্ষক নিয়োগ সংক্রান্ত নথি হাইকোর্টে জমা করল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে বুধবার প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের তরফে ওই নথি জমা করা হয়েছে। কোথায় ত্রুটি আছে তা খুঁজে বের করে মামলাকারীকে ১৫ নভেম্বরের মধ্যে আদালতে জানাতে হবে।

২০১৪ সালের প্রাথমিক টেট অনুয়ায়ী ২০১৭ সালে ৪২ হাজারেরও বেশি শিক্ষক নিয়োগ করেছিল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। শুধু উত্তর দিনাজপুরে এমন ১৩ জনকে চিহ্নিত করা গিয়েছে, যাঁরা টেটে উত্তীর্ণ না হয়েও প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষক হিসাবে নিযুক্ত হয়েছিলেন। এনিয়ে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের সিঙ্গল বেঞ্চে মামলা দায়ের হয়েছিল। তিনি বিষয়টির মধ্যে বড় দুর্নীতির ইঙ্গিত পেয়ে ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চে পাঠিয়ে দেন। ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি গত ৯ সেপ্টেম্বর প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের কাছে নিয়োগ সংক্রান্ত সমস্ত নথি চেয়ে পাঠিয়েছিলেন। এদিন সেই নথি জমা করেছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।

- Advertisement -

মামলাকারীর তরফে আইনজীবী শুভ্রপ্রকাশ লাহিড়ী জানান, এত নথি মামলাকারীর পক্ষে খতিয়ে দেখা প্রায় অসম্ভব। তাই এই সমস্ত নথি খতিয়ে দেখার জন্য যদি কোনও এজেন্সি নিযুক্ত করা হয় তাহলে ভালো হয়।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান বিচারপতি রাজেশ বিন্দলের ডিভিশন বেঞ্চ জানিয়েছে, আগে মামলাকারী সমস্ত নথি খতিয়ে দেখুক। তারপর আদালত পরবর্তী পদক্ষেপ করবে।