কেন্দ্র সাধারণ মানুষ নয়, বৃহৎ পুঁজিপতির স্বার্থে কাজ করে: কাকলি

192

কলকাতা: কেন্দ্রীয় সরকার শুধু কৃষক বিরোধী নয়, জনবিরোধী সরকার। সাধারণ মানুষের চাইতে বৃহত্তর স্বার্থেই কাজ করে এই সরকার। অন্যান্য দিনের মতো বৃহস্পতিবারও তৃণমূল কংগ্রেস ভবনে সাংবাদিকদের সামনা সামনি হয়ে ঠিক এভাবেই কেন্দ্রীয় সরকারের বিরোধিতায় মুখর হলেন তৃণমূল সাংসদ কাকলি ঘোষ দস্তিদার।

তিনি বলেন যে, স্বামীনাথন কমিশন বিভিন্ন বিষয়ে চিন্তা ভাবনা করেই কৃষকদের জন্য রিপোর্ট পেশ করেছিলেন। তার মধ্যে ছিল চাষের বীজ, থেকে আরম্ভ করে সার সহ সমস্ত চিন্তা ভাবনাই। কিন্তু কেন্দ্রীয় সরকার স্বামীনাথন কমিশনের রিপোর্ট কে কোন গুরুত্বই দেয় নি। তারা আশা করেন কেন্দ্রীয় সরকার ওই কমিশনের রিপোর্ট কে গুরুত্ব দিয়ে দেখবে।

- Advertisement -

কেন্দ্র সরকারের কাছে তারা এই আবেদন জানালেও, তিনি নিজেই জানান যে, তাদের কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে সেই আবেদন করাটাই হচ্ছে বৃথা । কারণ এই সরকার সংসদীয় রীতি-নীতি যেমন মানেনা, তেমনি অগণতান্ত্রিক ভাবে অর্ডিন্যান্স জারি করে । সংসদ কে উপেক্ষা করে অর্ডিন্যান্স জারি করে নিজেদের স্বার্থ চরিতার্থ করে।

সেইসঙ্গে তিনি এদিন এ অভিযোগও তোলেন যে, কেন্দ্রীয় সরকারের আনা তিনটি কৃষি বিলের মধ্যে দ্বিতীয় বিলটি হল মারাত্মক। তার মতে নীল চাষের সমতুল্য এই বিল। কারণ বৃহৎ পুঁজিপতিদের কাছে কৃষকদের সত্তাকে বন্ধক রেখেই তাদের চাষাবাদ করতে হবে। এর বিরুদ্ধে কৃষকেরা যেমন রাস্তায় নেমেছেন, তেমনি তারাও একটানা প্রতিবাদ আন্দোলন কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন। সেই সঙ্গে তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি আইনের প্রতিবাদে সাধারণ মানুষকেও প্রতিবাদে সামিল হওয়ার আবেদন জানান। কারণ কৃষকেরা মারা পড়লে সাধারণ মানুষকেও না খেয়ে মরতে হবে। এই চিন্তা ভাবনা জানো যেন সাধারণ মানুষের মাথায় থাকে বলেও তিনি জানান।