দলবদল নয় দিন বদলের দাবি নিয়ে পালটা প্রচার সিপিএমের

98

ফালকাটা: নির্বাচনি ইস্তাহারের পাশাপাশি স্থানীয় ইস্যু নিয়ে তো প্রচার চলছেই। এবার দুই ফুলের বিরুদ্ধেও ফালাকাটায় সরব হচ্ছেন বাম নেতারা। দলবদল নয়, দিন বদলের দাবিকে গুরুত্ব দিয়ে প্রচার চালাচ্ছে সিপিএম নেতৃত্ব। এজন্য ফালাকাটা শহরের একাধিক জায়গায় বাম নেতাকর্মীরাও দেওয়াল লিখনে পদ্মফুল ও জোড়া ফুলের ছবি আঁকছেন। এক সঙ্গে দুই ফুলের ছবি অঙ্কন করে নাম দেওয়া হচ্ছে ‘বিজেমূল’। পাশাপাশি সোশ্যাল মিডিয়াতেও চলছে প্রচার। এভাবেই নানা কায়দায় যুব সমাজকে আকৃষ্ট করতে সংযুক্ত মোর্চার তরফে ফালাকাটা জুড়ে ভোটের প্রচার করছে সিপিএম।

গত বিধানসভা নির্বাচনের পর এবারও সংযুক্ত মোর্চার তরফে ফালাকাটা কেন্দ্রে সিপিএম প্রার্থী হয়েছেন ক্ষিতীশচন্দ্র রায়। প্রার্থীর সমর্থনেই এখন প্রচারের নানা কৌশলকে গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। সেই কারণে তৃণমূল ও বিজেপিকে এক যোগে আক্রমণ করে সিপিএমের দেওয়াল লিখন চলছে। বেশ কিছু দেওয়ালে দেখা যাচ্ছে প্রার্থীর নামের পাশেই বড় একটি পদ্মফুলের সঙ্গেই ঘাসফুলের ছবি। নীচে লেখা বিজেমূল। আবার কোথাও লেখা দলবদল নয়, দিন বদলের দাবিতে ভোট দিন।

- Advertisement -

এ প্রসঙ্গে ডিওয়াইএফআই’র জেলা সভাপতি ফালাকাটার বাপন গোপ বলেন, ‘তৃণমূলের অধিকাংশ নেতারাই এখন দলবদল করে বিজেপিতে নাম লিখিয়েছেন। বিজেপির প্রার্থী তালিকাতেও দলবদলকারীদের ঠাঁই হয়েছে। এজন্যই দুই দলকে আমরা নাম দিয়েছি বিজেমূল।’দলের প্রার্থী ক্ষিতীশচন্দ্র রায় বলেন, ‘তৃণমূল ও বিজেপির সম্পর্ক হল চোরে চোরে মাসতুতো ভাই। সাধারণ মানুষ, যুব সমাজ সবই দেখছে।’

তৃণমূলের ব্লক সভাপতি তথা প্রার্থী সুভাষ রায় বলেন, ‘ফালাকাটায় সিপিএমের ভোট পেয়েছিল বিজেপি। তাই বামেরাই খাল কেটে কুমির এনেছে।’ বিজেপির জেলা সহ সভাপতি জয়ন্ত রায় বলেন, ‘সিপিএম এখন অপ্রাসঙ্গিক। সেজন্যই ওদের সংযুক্ত মোর্চায় যেতে হয়েছে। ফালাকাটার মানুষ বিজেপির পক্ষেই রায় দেবেন।’