সকলের অগোচরেই থেকে গেল দেশের ‘প্রথম’ নেতাজি মূর্তি

284

জলপাইগুড়ি: দেশের প্রথম নেতাজির মর্মর মূর্তিকে ঘিরে আগ্রহ ছিল যথেষ্ট। তবে সেই মূর্তিকে নিয়ে কোনও গবেষণা করার সুযোগ আপাতত কেন্দ্র বা রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে করা হয়নি। এবার সেই মূর্তিকে ঘিরে যাতে গবেষণার পথ সুগম করা হয় সেই দাবিতে শুক্রবার সরব হল জলপাইগুড়ি নেতাজি সুভাষ ফাউন্ডেশন।

এদিন জলপাইগুড়ি নেতাজি সুভাষ ফাউন্ডেশনের সভাপতি তথা প্রাক্তন বিধায়ক গোবিন্দ রায় জানান, নেতাজির প্রথম মূর্তিকে ঘিরে গবেষক মহলের যথেষ্ট উৎসাহ ও উদ্দীপনা রয়েছে। তাঁদের প্রতিষ্ঠানে মূর্তিটিও সংরক্ষিত রয়েছে। তবে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার সেই মূর্তিটিকে নিয়ে গবেষণার ক্ষেত্রে আপাতত কোনও পদক্ষেপ নেয়নি। তাই কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকার সেই মূর্তিটিকে নিয়ে গবেষণার ক্ষেত্রটিকে যাতে প্রসারিত করে সংগঠনের তরফে এদিন এমনটাই দাবি তোলা হয়।

- Advertisement -

প্রসঙ্গত, ১৯৫১ সালের ২৩ জানুযারি বরেণ্য স্বাধীনতা সংগ্রামী সতীশ লাহিড়ী এবং সহযোগী স্বাধীনতা সংগ্রামীরা করলা নদীর পাড়ে নেতাজির মূর্তি স্থাপন করেন। শুধু তাই নয় ইম্ফলের মাটিতে যুদ্ধে যে সমস্ত আজাদ হিন্দ সৈনিক জীবন উৎসর্গ করেছিলেন তাদের অস্থি সংগ্রহ করে আনা হয় জলপাইগুড়িতে। কোহিমা, হলদিঘাট, পাণিপথ এবং কুরুক্ষেত্রের মাটির পাশাপাশি নর্মদার পূণ্যশিলা জলপাইগুড়ির মাটিতে প্রথিত করে আজাদ হিন্দ শহিদ স্মারকবেদী গড়ে তোলা হয়।