ধসছে সেতুর দু’দিকের গার্ডওয়াল, আতঙ্কে গ্রামবাসীরা

136

রায়গঞ্জ: বামুহা ব্রিজের দু’দিকের গার্ডওয়াল ক্রমশ ভেঙে পড়ছে। ঘটনায় আতঙ্কিত রায়গঞ্জ ব্লকের ৫ নম্বর শেরপুর অঞ্চলের বাসিন্দারা। অভিযোগ, একাধিক সময় তা সংস্কারের দাবি উঠলেও আজও তা সংস্কার হয়নি। গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে জেলা পরিষদে হয়েছিল একাধিক দরবার। যদিও স্থানীয়দের দাবি কোনও লাভ হয়নি। ঘটনায় ক্ষোভের পারদ চড়তে শুরু করেছে স্থানীয় মহলে।

প্রায় ছয় বছর আগে কুলিক নদীর উপর তৈরি হয় বামুহা ব্রিজ। এরপর রক্ষনাবেক্ষনের জের এবং বর্ষায় জলের তোড়ে সেতুর দুই ধারের গার্ডওয়াল ভাঙতে শুরু করে। যার ফলে ক্ষতিগ্রস্ত হয় রাস্তাও। তা অবশ্য গ্রামবাসীরা উদ্যোগ নিয়ে সংস্কার করে চলাচলের উপযোগী করে তোলেন। সেক্ষেত্রে সেতুর গার্ডওয়াল সংস্কারের দাবি ক্রমেই জোড়াল হয়ে উঠছে।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দা মুস্তাফর মহম্মদ বলেন, ‘ব্রিজের দু’পাশের গার্ডওয়াল ভেঙে গিয়েছে। বন্যা হলেই মনে হয় এবার ব্রিজ থাকবে না। গ্রামবাসীরা মিলে বালির বস্তা ফেলে যাতায়াতের জন্য কোনও প্রকার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। তবে সমস্যা বেড়েই চলেছে।’

শেরপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান ভানুরাম বর্মন বলেন, ‘বামুহা ব্রিজ পঞ্চায়েতের বিষয় নয়, জেলা পরিষদ তৈরি করেছে। ২০১৭-র বন্যার পর থেকে ব্রিজের অবস্থা খারাপ। এর আগেও জেলা পরিষদের তরফে ব্রিজের তদারকি করা হয়েছে। আবারও ব্রিজের মেরামতের জন্য জেলা পরিষদকে আমরা জানাব। এবিষয়ে জেলা পরিষদকে জানানো হয়েছে, বিষয়টি নজরে রয়েছে। উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’