সম্পত্তি ভাগের টাকা না মেলায় বৌকে মারধর করে জঙ্গলে ফেলে পালাল স্বামী

74
ফাইল ছবি

রায়গঞ্জঃ শ্বশুর বাড়ির জমির ভাগের টাকা না মেলায় বধূকে বেধড়ক মারধর করে জঙ্গলে ফেলে পালিয়ে গেল স্বামী। মঙ্গলবার সকালে হেমতাবাদ থানার আরাজি কাশিমপুরে এই ঘটনা ঘটেছে। ঘটনার পর থেকেই স্বামী আব্দুল হোসেন পলাতক। ‌ পুলিশ ও প্রতিবেশী সূত্রে জানা গিয়েছে, বছর ছয়েক আগে হেমতাবাদ থানার আরাজি কাশিমপুরের বাসিন্দা আব্দুল হোসেনের সঙ্গে কান্তরের বাসিন্দা সাবিনা পারভিনের বিয়ে হয়। বিয়ের তিন মাস পর থেকেই পণের জন্য সাবিনাকে মারধর করত বলে অভিযোগ। সম্প্রতি বাপের বাড়ির সম্পত্তি বিক্রির টাকা থেকে নিজের ভাগের দুই লক্ষ টাকা পেয়েছিলেন ওই বধূ। সেই টাকা হাতানোর চেষ্টা করেছিল স্বামী আব্দুল হোসেন। গতকাল সেই টাকা না পেয়ে সাবিনাকে রাতভর বেধড়ক মারধর করে দুই হাত পা বেঁধে জঙ্গলে ফেলে পালিয়ে যায়। এদিন সকালে ওই বধূকে উদ্ধার করে প্রথমে হেমতাবাদ গ্রামীণ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখান থেকে রেফার করা হয় রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। পরে তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়। অন্যদিকে নির্যাতিতার ভাই জিয়াউল হক জানান, জামাইবাবুর ভাই কাশিম আলিকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে তারা বাড়িতে বেঁধে রেখেছেন। যতক্ষণ না অভিযুক্তরা আত্মসমর্পণ করবে ততক্ষণ পর্যন্ত তাঁকে ছাড়া হবে না।