কথা দিয়ে প্রতিশ্রুতি রাখেননি নেতারা, বিপাকে উলেনের পরিবার

98

সুভাষচন্দ্র বসু, বেলাকোবা : প্রতিশ্রুতির বন্যা বয়ে গেলেও তা প্রতিশ্রুতিই রয়ে গিয়েছে। উলেন রায়ের স্ত্রী আজকাল শ্রমিক হিসাবে চা বাগানে কাজ করেন। দৈনিক হাজিরা ১৫০ টাকা। সংসারে তিন ছেলেমেয়ে ও শ্বশুর রয়েছেন। রোজগারের এই টাকায় সংসার চালাতে রীতিমতো আতান্তরে পড়েছেন। অথচ এমনটা হওয়ার কথা মোটেও ছিল না।

গত বছরের ৭ ডিসেম্বর উত্তরকন্যা অভিযানে গিয়ে ছররার আঘাতে বিজেপি কর্মী উলেন রায় মারা গিয়েছিলেন। কে ওই গুলি ছুড়েছিল তা আজও পরিষ্কার হয়নি। কিন্তু তাঁর মৃত্যু নিয়ে ব্যাপক রাজনীতি হয়। উলেনবাবুর মেয়ে চিন্তামণি অসুস্থ। অভিযোগ, তাঁকে সাহায্য করতে নেতারা বহু প্রতিশ্রুতি দিলেও আজ পর্যন্ত কোনও কাজের কাজই হয়নি। ঘটনাটিকে কেন্দ্র করে রাজগঞ্জ ব্লকের মান্তাদারি গ্রাম পঞ্চায়েততের মেইনঘোরা গ্রামে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

- Advertisement -

চিন্তামণি বলেন, দুবছর ধরে পেটের যন্ত্রণায় ভুগছি। হাসপাতাল থেকে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করাতে বলা হলেও টাকার অভাবে তা করতে পারিনি। মান্তাদারি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান দীপক বিশ্বাস, তণমূল কংগ্রেসের অঞ্চল কমিটির সভাপতি ললিত রায়, মলয় রায় প্রমুখ অবশ্য সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন। বিজেপির বিধায়ক ডাঃ জয়ন্ত রায় বলেন, উলেন রায়ের মেয়ে কী হয়েছে জানা নেই। করোনার প্রকোপ কমার পর এ বিষয়ে যোগাযোগ করা হলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।