দীর্ঘক্ষণ বন্ধ রেলগেট, অ্যাম্বুলেন্সেই মৃত্যু শিশুর

153

দুর্গাপুর: দীর্ঘক্ষণ বন্ধ ছিল রেলগেট। এর জেরে যানজটে ফেসে রইল অ্যাম্বুলেন্স। মৃত্যু হল এক অসুস্থ শিশুর। শুক্রবার দুপুর ১টা নাগাদ পূর্ব রেলের আসানসোল ডিভিশনের পাণ্ডবেশ্বর রেলগেটে ঘটনাটি ঘটেছে। মৃত শিশুর নাম রিমা সাহা(১০)। তার বাড়ি ঝাড়খণ্ডের করলা এলাকায়। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় ৪০ মিনিট বন্ধ ছিল রেলগেটটি। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। শুরু হয় বিক্ষোভ। জানা গিয়েছে, অসুস্থ রিমার চিকিৎসার জন্য অ্যাম্বুলেন্সে করে দুর্গাপুরের একটি হাসপাতালে নিয়ে যাচ্ছিলেন তার অভিভাবকরা। কিন্তু পাণ্ডবেশ্বর রেলগেট বন্ধ থাকায় সেই যানজটে আটকে যায় অ্যাম্বুলেন্স।

দীর্ঘক্ষণ গাড়ির মধ্যে আটকে থাকায় শিশুটি আরও বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ে। শিশুটির অবস্থা দেখে তার অভিভাবকরা ও স্থানীয়রা রেলগেটের দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিকে গেট খুলে দেওয়ার অনুরোধ জানান বারংবার। কিন্তু দায়িত্বের অজুহাত দেখিয়ে তিনি রেলগেট খুলতে অস্বীকার করা হয় বলে অভিযোগ। সময়মতো হাসপাতালে পৌঁছোতে না পারার জন্য রেল গেটের সামনে দাঁড়িয়ে গাড়ির মধ্যেই শিশুটির মৃত্যু হয়। ঘটনার খবর পেতেই এলাকার তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা ও কর্মীরা সেখানে পৌঁছোন। স্থানীয়রা পাণ্ডবেশ্বর স্টেশনের স্টেশন ম্যানেজার সুনীল কুমার মণ্ডলকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান। সেই সঙ্গে রেলগেটের দায়িত্বে থাকা কর্মীর শাস্তির দাবিও জানান তাঁরা। গোটা ঘটনার জন্য স্টেশন ম্যানেজারকে একটি লিখিত অভিযোগও দেওয়া হয়।

- Advertisement -

স্থানীয়দের অভিযোগ, কারণে অকারণে সারাদিনে বহুবার এই রেলগেট বন্ধ থাকে। সময়ে গন্তব্যে পৌঁছোন যায় না। সাধারণ মানুষদের চরম সমস্যার মধ্যে পড়তে হয়। এনিয়ে এই রেলগেটে এধরণের তিনটি ঘটনা ঘটল। যানজট এড়াতে এই রেলগেটে ফ্লাইওভার তৈরির দাবি জানান তাঁরা। স্টেশন ম্যানেজার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। রেলগেট খোলা বা বন্ধে আমার কিছু করার নেই। গোটা বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানাব।