স্কুলের প্রাচীরে লাগানো লোহার গ্রিল ভেঙে নিয়ে যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা

95

ময়নাগুড়ি: স্কুলের সীমানা প্রাচীরে লাগানো লোহার গ্রিল ভেঙে নিয়ে যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। ময়নাগুড়ি হাই স্কুলের ঘটনা। কেবলমাত্র গ্রিল নয় স্কুলের ভেতরে সীমানা প্রাচীর টপকে দুষ্কৃতীরা প্রবেশ করে জলের কলের স্টপ কক পর্যন্ত খুলে নিয়ে যাচ্ছে। যদিও স্কুলের তরফে এখনও লিখিত কোনও অভিযোগ জানানো হয়নি। তবে ঘটনায় মর্মাহত এলাকার অভিভাবক, সাধারণ মানুষ ও স্কুল পড়ুয়ারা। স্কুলের সামনেই ছোট একটি মাঠ রয়েছে। যেটা নন্দন কানন নামেই পরিচিত। এখানে চারদিকে সীমানা প্রাচীর দেওয়া রয়েছে। সেই সীমানা প্রাচীরে উপরের অংশে লোহার গ্লিল লাগানো রয়েছে। সেই গ্রিল গুলি ভেঙে নিয়ে যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। এছাড়াও স্কুলের মূল সীমানা প্রাচীরের ও লোহার গ্রিল ভেঙে চুরি হচ্ছে। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন, স্থানীয় মানুষ থেকে অভিভাবক এবং স্কুল পড়ুয়ারা।

স্কুলের প্রধান শিক্ষক শিবব্রত রায় বলেন, এখনও লিখিতভাবে কোনও অভিযোগ করিনি। অত‍্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা। শুধু লোহার গ্রিল নিয়ে যাচ্ছে তা নয়। স্কুলের ভেতরে জলের কলের স্টপ কক পর্যন্ত খুলে নিয়ে যাচ্ছে। স্কুল পরিচালন কমিটির সভাপতি সৌমেন সাহা বলেন, ‘স্কুল সকলের সম্পদ। এ বিষয়ে সকলেরই এগিয়ে আসা উচিত। এভাবে জিনিসপত্র ভেঙে নিয়ে গিয়ে ১০০ টাকার জিনিস বিক্রি করছে ২০ টাকায়। কিন্তু এরফলে আমরাই আমাদের আগামী প্রজন্মের ক্ষতি করছি। অভিভাবক সঞ্জীব দে বলেন, ‘অত‍্যন্ত নিন্দনীয় ঘটনা। একাদশ শ্রেণির ছাত্র অর্ঘ্য বিশ্বাস বলেন, এটা ভাবতেই অবাক লাগছে। একাদশ শ্রেণির ছাত্র নির্ঝড় বিশ্বাস বলেন, স্কুল কর্তৃপক্ষের কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। স্থানীয় বাসিন্দা দেবজ‍্যোতি বন্দ‍্যোপাধ‍্যায় বলেন, বিষয়টি অবাক করে দেওয়ার মত। স্কুল সকলের কাছে একটা আলাদা সম্পদ এবং সম্মানের। সেই ভালোবাসা দিয়ে রক্ষনাবেক্ষণের দায়িত্ব সকলের। স্থানীয় বাসিন্দা সুবীর দাস বলেন, ‘এর বিরুদ্ধে স্কুল কর্তৃপক্ষ এবং প্রশাসনের কড়া ব‍্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন।’

- Advertisement -