বিজেপির পতাকা-ফ্লেক্স ছিঁড়ে দিচ্ছে দুষ্কৃতীরা, অভিযোগের তীর তৃণমূলের দিকে

108

হেমতাবাদ: রাতের অন্ধকারে বিজেপির পতাকা, ফ্লেক্স ছিঁড়ে দিচ্ছে তৃণমূল। এমনকি বিজেপি পার্টি অফিসের সামনে সাইড ফর তৃণমূল লিখে দিয়ে যাচ্ছে তৃণমূলের ছাত্র-যুবরা। বিজেপি অফিসের সামনে জোরে জোরে স্লোগান দেওয়া হচ্ছে ‘জয় হিন্দ, জয় বাংলা’। এমন সব অভিযোগ তুলে হেমতাবাদ থানার দ্বারস্থ হলেন সংশ্লিষ্ট ব্লকের মণ্ডল সভাপতি প্রশান্ত কুমার ভৌমিক। এদিন হেমতাবাদ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন বিজেপি পার্টি অফিসের প্যাডে।

শুধু থানায় অভিযোগ করেই থেমে থাকেননি একেবারে সাংবাদিক সম্মেলন করে এই অভিযোগের কথা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী। তৃণমূল অবশ্য তাদের দলের কর্মীদের বিরুদ্ধে মিথ্যে মামলা দেওয়ার জন্য প্রতিবাদ জানিয়েছে। এদিন বিজেপির জেলা পার্টি অফিসে সাংবাদিক সম্মেলন করেন বিজেপির জেলা সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী। তাঁর বক্তব্য, ‘আসলে তৃণমূল বুঝে গিয়েছে, রাজনৈতিক সংস্কৃতি নষ্ট করছে তৃণমূল। গোটা জেলায় বিভিন্ন জায়গায় রাতের অন্ধকারে আমাদের ফ্ল্যাগ ফেস্টুন পতাকা ছিঁড়ে দিচ্ছে তৃণমূল। কোথাও কোথাও আবার পতাকা ফেস্টুন রাতের অন্ধকারে আগুন ধরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। বিজেপির পার্টি অফিসের পাশে দেওয়াল দখল করে নিচ্ছে। আমরা রাজনৈতিক অশান্তি চাই না।’

- Advertisement -

এর উত্তরে তৃণমূলের ব্লক সভাপতি তথা হেমতাবাদ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি শেখর রায় বলেন, ‘বিজেপি কর্মীরাই নিজেদের ফ্ল্যাগ ফেস্টুন ছেড়ে দিয়ে তৃণমূলের নাম দিচ্ছে। জেলা পরিষদ হেমতাবাদ পঞ্চায়েত সমিতি, হেমতাবাদের বিভিন্ন গ্রাম পঞ্চায়েত তৃণমূলের দখলে ফলে আমাদের ভীত খুব শক্ত। বিজেপি এমন অভিযোগ আনছে তা হাস্যকর। আসলে তাদের পায়ের তলার মাটি নেই। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনের আগে আসর গরম করতে এইসব মন্তব্য করছে। আর সেই চক্রান্ত করে আমাদের দলের কর্মীদের আইনের জলে ফাঁসাতে চাইছে বিজেপি। আমাদের খেয়েদেয়ে আর কোন কাজ নেই যে বিজেপির পতাকা ফেস্টুন নষ্ট করতে যাব।’ বিষয়টি নিয়ে হেমতাবাদ থানার পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে পুলিশ তদন্ত করছে।’