মেয়ের বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে পালালেন মা

165

ওয়াশিংটন: পুরো পরিবারকে চরম বিড়ম্বনায় ফেলে মেয়ের বয়ফ্রেন্ডের সঙ্গে পালালেন মহিলা। জানা গিয়েছে, জর্জজিনা অলড্রিজ নামে ওই মহিলা ব্রিটেনের বাসিন্দা। তাঁর গর্ভবতী মেয়ের বয়ফ্রেন্ড রায়ানের সঙ্গে তিনি পালিয়ে যান। দ্বিতীয় সন্তানের জন্ম দেওয়ার জন্য জর্জজিনার মেয়ে জেস অলড্রিজ হাসপাতালে ভর্তি। এর আগেও জেস ও রায়ানের একটি সন্তান রয়েছে। সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়নি জেস ও রায়ানের। কিন্তু বেশ কয়েক বছর ধরেই দাম্পত্য জীবন কাটাচ্ছেন তাঁরা। জেসকে হাসপাতালে ভর্তি করে রায়ান। তবে তলে তলে জেসের শ্বাশুড়ি জর্জজিনার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন ২৪ বছরের যুবক।

হাসপাতালে জেসকে রেখে জর্জিনাকে নিয়ে পালিয়ে যায় রায়ান। এরপর কন্যা সন্তানের জন্ম হয় রায়ানের। হাসপাতাল থেকে বাবার সঙ্গে বাড়ি ফিরে মেয়ে দেখে একটি চিঠি লিখে পালিয়ে গিয়েছে রায়ান ও জর্জজিনা। এই ঘটনায় কান্নায় ভেঙে পড়ে মেয়ে। জর্জজিনা জানিয়েছে, তিনি রায়ানকে ভালোবাসেন। মায়ের স্বীকারোক্তি শুনে চুপ করে যায় মেয়েও। দুই সন্তানকে নিয়ে এরপর বাবার কাছে থেকে যায় জেস। এদিকে শাশুড়িকে বিয়ে করার জন্য সব ব্যবস্থা করে ফেলে রায়ান। এতদিন ধরে জেসকে সে বিয়ে করেনি। এবার প্রশ্ন উঠছে তবে কি শাশুড়ির জন্যই এত দিন মেয়েকে বিয়ে না করেই সহবাস করেছেন। যদিও ওই দেশে এ ঘটনা নতুন নয়। তাই বলে প্রেমিকার মায়ের সঙ্গে পালানোর ঘটনায় তাজ্জব সকলে।

- Advertisement -