ভোটার তালিকা থেকে বাদ ১৮৩ জন ’পলাতক দাগী অপরাধীর’ নাম

151

বর্ধমান: নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে শুরু হল পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন ১৮৩ জন পলাতক দাগী অপরাধীর নাম ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করল। যদিও প্রশাসনের কর্তাদের বক্তব্য, ফৌজদারি কার্যবিধি মেনে আদালত ওই পলাতকদের ‘প্রোক্লেমড অফেন্ডার’ ঘোষণা করেছেন। তারপরেই ভোটার তালিকা থেকে তাদের নাম বাদ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। গ্রেপ্তারি পরোয়ানা থাকা যে অপরাধীরা গ্রেপ্তার হয়নি তাদের নাম ভোটার তালিকা থেকে বাদ দেওয়ার নির্দেশ নির্বাচন কমিশন দিয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, পলাতক অপরাধীর সংখ্যায় সবথেকে এগিয়ে কাটোয়া থানা। সেখানকার ৪৭ জন অপরাধী এখনও পলাতক রয়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কেতুগ্রাম থানা। এখানকার ৩৬ জন অপরাধী পলাতক। বর্ধমান ও মন্তেশ্বর থানায় পলাতক অপরাধীর সংখ্যা যথাক্রমে ২১ ও ২০ জন। ১ ডিসেম্বর থেকে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হওয়ার পর জেলার ১২৫৭ জনকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তবে, ৪০৭ জন অভিযুক্ত রয়েছে। এখনও পর্যন্ত ৫০ জন দাগী দুষ্কৃতীর কাছে ১১০ ধারায় নোটিস দিয়েছে পুলিশ। এছাড়াও গোলমাল পাকাতে পারে এমন আশঙ্কা করে ৪৬২১ জনকে ১০৭ ধারায় পুলিশ নোটিশ ধরানো হয়েছে। এদের প্রত্যেককে ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে বিশিষ্টজনের সাক্ষী সহ মুচলেকা দিয়ে এলাকায় শান্তি বজায় রাখবেন বলে অঙ্গিকার করতে হবে। জেলার পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি থাকা সকল অপরাধীকে ধরার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এই সব অপরাধীদের মধ্যে খুনের ঘটনায় অভিযুক্ত রয়েছেন ৭১ জন। এছাড়াও মহিলা সংক্রান্ত অপরাধে অভিযুক্ত রয়েছেন ১১১ জন।

- Advertisement -