বাবা-দাদা মিলে খুন করল অন্তঃসত্ত্বা কিশোরীকে

532

নিউজ ডেস্ক: দলিত পরিবারের ১৬ বছরের কিশোরীকে খুন করল বাবা ও দাদা। অন্তঃসত্ত্বা হয়েছিল ওই কিশোরী। লোকলজ্জায় তাই নিজের মেয়েকে খুন করল বাবা। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের শাহজাহানপুর জেলায়।

মেয়ের কৃতকর্মে ঘরের বাইরে পা রাখতে লজ্জা বোধ হচ্ছিল পরিবারটির। পাঁচ জনের পাঁচ কথা। কটূক্তি কানে আসছিল। ধৈর্য হারায় পরিবার। প্রচণ্ড মারধর করে। শেষ পর্যন্ত শ্বাসরোধ করে মেরে ফেলে মেয়েটিকে। বোনকে বাঁচানোর চেষ্টা না করে দাদাও শামিল হয় পরিবারের সম্মান রক্ষায়।

- Advertisement -

ছেলেকে সঙ্গে নিয়ে সকলের নজর এড়িয়ে মৃত মেয়েকে নদীর তীরে গিয়ে পুঁতে দিয়ে এসেছিল বাবা। পুলিশের কানে পৌঁছে যায় সে খবর। ধৃতকে জেরা করে নদীর চর থেকে দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ। পুলিশের জেরায় মেয়েকে খুনের কথা প্রকাশ করেন তিনি। বাড়ির বাইরে বের হলে অপমানজনক কথাবার্তা, কটূক্তি সহ্য করতে পারছিলেননা বলে জানান তিনি। তাই মেয়েকে খুন করে তিনি।

শাহজাহানপুরের এসএসপি এস আনন্দ জানান, দু’জনের বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩০২ ও ২০১ ধারায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। পুলিশ তাদের গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ মেয়েটির মা ও অন্যান্য আত্মীয়দেরও জেরা করেছে।