জাতীয় সড়কের ডিভাইডার নিয়ে বিপাকে ত্রিমোহিনীবাসী

570

হিলি: ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়কের ডিভাইডার নিয়ে বিপাকে পড়েছে ত্রিমোহিনীবাসী। জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণ প্রকল্পে ওই এলাকার ত্রিকোণ মোড় একটি নৌকা আকৃতির ডিভাইডার তৈরি করেছে এনএইচ। যাকে ঘিরে কার্যত ওই এলাকার ট্রাফিক ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। সড়কে বাঁক নিতে গিয়ে দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে যানবাহন। যদিও পুলিশ ব্যারিকেড বসিয়ে ট্রাফিক ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করছে। কিন্তু তাতেও হিমশিম খেতে হচ্ছে পুলিশকর্মীকে। স্থানীয়দের দাবি, দ্রুততার সঙ্গে ওই ডিভাইডার ভেঙে দিয়ে সঠিক নকশা তৈরি করে পুননির্মাণ করা হোক।

উল্লেখ্য, ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণ প্রকল্পে বালুরঘাট থেকে ত্রিমোহিনী পর্যন্ত প্রায় ২০ কিলোমিটার রাস্তার কাজ করছে ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটি অফ ইন্ডিয়া। বরাত প্রাপ্ত ঠিকাদারি সংস্থা ওই কাজটিতে প্রায় বছর তিনেক আগে হাত লাগিয়েছিল। বর্তমানে কাজ প্রায় শেষ অংশে পৌঁছে গিয়েছে। ওই কাজের অংশ হিসেবে ত্রিমোহিনীতে ৫১২ নম্বর জাতীয় সড়ক এবং ত্রিমোহিনী পতিরাম রাজ্য সড়কের সংযোগ স্থলে ত্রিকোণ মোড়ের উপর একটি নৌকা আকৃতির ডিভাইডার তৈরি করে এনএইচ।

- Advertisement -

অভিযোগ, পরিকল্পনা মাফিক ওই ডিভাইডার তৈরি করা হলেও সেটি তৈরির পর থেকে সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে। বিপদজনক হয়ে পড়েছে ডিভাইডারটি৷ গাড়ির বাঁক নিয়ে সমস্যা হচ্ছে। বাঁক নিতে গিয়ে মাঝে কয়েকটি গাড়ির যন্ত্রাংশ ভেঙে গিয়ে রাস্তার উপর বিকল হয়ে দাঁড়িয়ে পড়ে। রাস্তা পাড়াপাড়ে সমস্যায় পড়ছে পথচারী থেকে গাড়ি চালকরা। অন্যদিকে, ট্রাফিক ব্যবস্থা সুনিশ্চিত করতে পুলিশের তরফে ব্যারিকেড দেওয়া হয়েছে। তবে ছাউনি না থাকায় রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে ট্রাফিক সামলাতে ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা পুলিশকর্মীদের।

এপ্রসঙ্গে স্থানীয় উজ্জ্বল মণ্ডল, মৃত্যুঞ্জয় দাস বলেন, ডিভাইডারটি নৌকা আকৃতির তৈরি করেছে। পরিকল্পিতভাবে করলেও বিপদজনক হয়ে পড়েছে। ট্রাফিক ব্যবস্থা ভেঙে পড়েছে। গাড়ির বাঁক নিতে সমস্যা হচ্ছে। অনিয়ন্ত্রিত গাড়ি চলাচল করছে। ফলস্বরূপ দুর্ঘটনা ঘটছে। মৌখিক ভাবে প্রশাসনকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। অবিলম্বে এটি ভেঙে দিয়ে সঠিক পরিকল্পনা গ্রহণ করে পুনর্নির্মাণ করা হোক ডিভাইডারটির।

এপ্রসঙ্গে হিলির বিডিও সৌমেন বিশ্বাস জানান, বিষয়টি নিয়ে স্থানীয়রা মৌখিক ভাবে জানিয়েছে। লিখিত অভিযোগ হলে বিষয়টি নিয়ে এনএচইয়ের সঙ্গে কথা বলে সমস্যার সমাধান করা হবে। এনএইচ যখন ডিভাইডারটি করেছে তখন নিশ্চয়ই কোনও ভিত্তি আছে। তবে সমস্যা হলে লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে সমাধানের চেষ্টা করা হবে। বিষয়টি নিয়ে জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণে বরাত প্রাপ্ত ঠিকাদারি সংস্থার সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলে তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়ে ওঠেনি।