ফেরিওয়ালার হারিয়ে যাওয়া টাকা ফেরাল পুলিশ

308

জলপাইগুড়ি: এক ফেরিওয়ালার হারিয়ে যাওয়া চল্লিশ হাজার টাকা রাস্তায় কুড়িয়ে পেয়ে ফিরিয়ে দিল পুলিশ। আর্থিক মন্দার বাজারে টাকা ফেরৎ পেয়ে খুশি ফেরিওয়ালা। বুধবার জলপাইগুড়ি জেলার ঘটনা।

বেশ কয়েক বছর ধরে জলপাইগুড়ি শহরে ঠেলা গাড়িতে করে কার্পেট ফেরি করে বিক্রি করে আসছেন মনোজ জয়সওয়াল। করোনা আবহে লকডাউনের কারণে গত তিন মাস ধরে ব্যবসাও মন্দ যাচ্ছিল তাঁর। এদিন দুপুরে শহরের একটি ব্যাংক থেকে ৪০ হাজার টাকা তুলে তিনি একটি ছোট ব্যাগে টাকা ভরে ঠেলা গাড়িতে থাকা কার্পেটের ফাঁকে গুঁজে রেখে ছিলেন। কদমতলা এলাকায় গিয়ে টাকা কার্পেটের ফাঁক থেকে টাকা বের করতে গিয়ে মনোজ বাবুর নজরে আসে সেটি যথাস্থানে নেই। আর্থিক মন্দার বাজার একসঙ্গে এতগুলো টাকা হারিয়ে যাওয়ায় কিছুটা হলেও ভেঙে পড়েন মনোজ। এরপরেই তিনি কোতয়ালি থানায় গিয়ে টাকা হারিয়ে যাওয়ার বিষয়ে বিস্তারিত জানান।

- Advertisement -

অপরদিকে শহরের টহলদারির সময় কদমতলা এলাকায় মনোজ বাবুর ব্যাগটি রাস্তায় কুড়িয়ে পান কোতয়ালি থানার টাউন বাবু শংকর দাস। ব্যাগের ভিতর নগদ টাকার পাশাপাশি মনোজ বাবুর ভোটার কার্ড এবং আধার কার্ড ছিল। সেখান থেকে বিস্তারিত তথ্য জোগাড় করে থানা থেকে ফোন করা হয় মনোজ বাবুকে। তাঁকে থানায় ডেকে পাঠিয়ে টাকা সমেত ব্যাগ তুলে দেওয়া হয় পুলিশের তরফে।

মনোজ বাবু বলেন, এমনিতেই লকডাউনের জন্য গত তিন মাস ধরে ব্যবসা তলানি থেকে গিয়ে ঠেকেছে। খুবই খারাপ অবস্থার মধ্যে দিয়ে চলতে হচ্ছে আমাদের। মহাজনকে দেওয়ার জন্য ব্যাংক থেকে টাকা তুলেছিলাম। হারিয়ে গেলে খুবই বিপদে পড়ে যেতাম। কোতয়ালি পুলিশকে অনেক ধন্যবাদ।

ডিএসপি হেড কোয়ার্টার প্রদীপ সরকার বলেন, মনোজ জয়সওয়াল নামে এক ব্যবসায়ীর টাকা ভর্তি ব্যাগ রাস্তায় পড়ে যায়। আমাদের টাউন বাবু শংকর দাস সেই ব্যাগটি কুড়িয়ে পান। আমরা ওই ব্যক্তিকে থানায় ডেকে তাঁর টাকা ফিরিয়ে দিয়েছি।