‘বাংলা মোদের গর্ব’ অনুষ্ঠান শুরু মালবাজার এবং গরুবাথানে

101

মালবাজার: তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের উদ্যোগে শুক্রবার থেকে মাল শহরের কলোনি ময়দানে বাংলা মোদের গর্ব অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। রাজ্য সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের তথ্যের পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও হচ্ছে। জলপাইগুড়ি থেকে আসা শিল্পী বিশ্বনাথ সেন মাথায় ১৪টি কলসী নিয়ে ব্যালেন্স প্রদর্শন করেন। যা এদিনের অনুষ্ঠানে সাড়া ফেলে। এদিন থেকে কালিম্পং জেলার গরুবাথান ব্লকের পাণ্ডারা মোড়ের মাঠেও বাংলা মোদের গর্ব অনুষ্ঠান শুরু হয়েছে। রবিবার পর্যন্ত অনুষ্ঠান চলবে।

এদিন বিকালে জলপাইগুড়ি জেলা স্তরের বাংলা মোদের গর্ব কর্মসূচি উদ্বোধন করেন জলপাইগুড়ি জেলার অতিরিক্ত জেলাশাসক (সাধারণ) বিবেক বাসের। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাজ্য তথ্য ও সংস্কৃতি দপ্তরের অধিকর্তা কৌস্তভ তরফদার, জলপাইগুড়ি জেলা তথ্য সংস্কৃতি আধিকারিক সূর্য বন্দ্যোপাধ্যায়, মাল পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর চেয়ারর্পাসন স্বপন সাহা, মালের বিধায়ক বুলু চিক বড়াইক, মাল পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি কৌশল্যা রায় প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। স্বাগত ভাষণে কৌস্তভ তরফদার বলেন, ‘৮টি জেলার ২৪টি স্থানে ইতিমধ্যেই বাংলা মোদের গর্ব অনুষ্ঠান হয়েছে। বর্তমানে শেষ পর্বের অনুষ্ঠান চলছে।

- Advertisement -

অতিরিক্ত জেলা শাসক বিবেক বাসের বলেন, ‘অনুষ্ঠানের মাধ্যমে সরকারি প্রকল্পের তথ্য তুলে ধরা হচ্ছে।‘ জেলা তথ্য সংস্কৃতি আধিকারিক সূর্য বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘লোক শিল্প এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশিত হচ্ছে। করোনা ভাইরাস প্রতিরোধের নিয়ম মেনেই অনুষ্ঠান হচ্ছে। এদিনের রাতের অনুষ্ঠানে শিল্পী জোজো উপস্থিত ছিলেন।

বিশ্বনাথবাবু বলেন, ‘আমি এদিন চৌদ্দটি কলসী নিয়ে ব্যালেন্স প্রদর্শন করেছি। জলপাইগুড়ি জেলাতে আমি ত্রিশটি কলসী নিয়ে ব্যালেন্স প্রদর্শন করে থাকি। রাজ্যস্তরে ৫০টি কলসী নিয়ে ব্যালান্স প্রদর্শন করেছি। সেফ ড্রাইভ সেভ লাইফ সহ অন্যান্য কর্মসূচিও প্রচারের মাধ্যমে তুলে ধরি।