আদালতের বন্দিদের খাবারের জন্য ৫ লক্ষ বরাদ্দ রাজ্যের

100

বর্ধমান: অর্থ বরাদ্দ না হওয়ায় সমস্যা তৈরি হয়েছিল আদালতের লকআপে বন্দিদের খাবারের। সেই সমস্যা নিরসসনে বর্ধমান, কালনা ও কাটোয়া আদালতের জন্য ৫ লক্ষ টাকা বরাদ্দ করল রাজ্য সরকার। বরাদ্দ হওয়া অর্থের মধ্যে ৩ লক্ষ ৪৯ হাজার টাকা বর্ধমান জেলা আদালতের জন্য। বাকি টাকা কালনা ও কাটোয়া আদালতের জন্য বারাদ্দ করা হয়েছে। অর্থ বরাদ্দ হওয়ার পরেই মঙ্গলবার খাবার সরবরাহকারী সংস্থাকে ডেকে পাঠান বর্ধমান আদালতের সিজিএম। বুধবার থেকেই খাবার সরবরাহের জন্য সিজেএম খাবার সরবরাহকারী সংস্থাকে বলে দেন । খবর মিলেছে সরবরাহকারী সংস্থা সিজেএমের প্রস্তাবে রাজি হয়েছেন ।

আদালত সূত্রে জানা গিয়েছে, খাবারের দর নিয়ে আগেই সিজেএমের কাছে আপত্তির কথা জানিয়েছিল খাবার সরবরাহকারী সংস্থা। তারা খাবারের জন্য বরাদ্দ অর্থ বাড়ানোর দাবিও জানিয়েছিল। জানা গিয়েছে, দীর্ঘদিন ধরে আদালতের লকআপে থাকা বন্দিদের জন্য বরাদ্দ খাবারের বিলের টাকাও মেটানো হয়নি। টাকা না পেয়ে চলতি বছরের ১ জানুয়ারি থেকে খাবার সরবরাহ করা বন্ধ করে দেন সরবরাহকারী সংস্থা। ফলে, সারাদিন না খেয়ে থাকতে হচ্ছিল বন্দিদের। তা নিয়ে বন্দিদের মধ্যে ক্ষোভ ছড়ায়।

- Advertisement -

বর্ধমান বার অ্যাসোসিয়েশনের সম্পাদক সদন তা জানান, বিষয়টি নিয়ে তারা সিজেএমের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। এরপরেই অবশেষে সুরাহা মিললো। খাবার সরবরাহকারী সংস্থার এক কর্তা এদিন বলেন, বন্দিপিছু খাবারের জন্য বরাদ্দ রয়েছে মাত্র ১৬ টাকা। তাতে ৬টি রুটি ও তরকারি দিতে হয়। জিনিসপত্রের দাম এখন অনেকটা বেড়েছে। পুরোনো দরে খাবার সরবরাহ করা সম্ভব হচ্ছে না। তার জন্য সিজেএম তাঁকে খাবারের দাম বাড়ানোর জন্য আবেদন করতে বলেছেন। সেইমতো আবেদন করবেন বলে তিনি জানিয়েছেন। বকেয়া টাকা শীঘ্রই মিটিয়ে দেওয়া হবে আদালতের তরফে সরবরাহকারী সংস্থাকে জানিয়েও দেওয়া হয়েছে ।