ছাত্রকে মারধর করে বিচুটি পাতা ঘষে দেওয়ার অভিযোগ গৃহশিক্ষিকার বিরুদ্ধে

105

রায়গঞ্জ: এক ছাত্রকে বেধড়ক মারধর করে বিচুটি পাতা ঘষে দেওয়ার অভিযোগ উঠল এক গৃহশিক্ষিকার বিরুদ্ধে। শুক্রবার ঘটনাটি ঘটে রায়গঞ্জ থানার কর্ণজোড়া আবাসনে। বর্তমানে ওই ছাত্র রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। অভিযুক্ত শিক্ষিকার নাম পিঙ্কি দাস। তাঁর বিরুদ্ধে কর্ণজোড়া ফাঁড়িতে লিখিত অভিযোগ করেছেন জখম ছাত্রের পরিবার।

মেডিকেল কলেজ সূত্রে জানা গিয়েছে, জখম কর্ণজোড়া হাই স্কুলের ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্র। কর্ণজোড়া মসজিদ পাড়ার বসিন্দা। এদিন শিক্ষিকার কাছে বাড়ির পড়া করে নিয়ে না যাওয়ায় শিক্ষিকা ও তাঁর স্বামী তাকে বেধড়ক মারেন বলে অভিযোগ। সেখানেই জ্ঞান হারিয়ে ফেলে ওই ছাত্র। পরিবারের লোকেরা খবর পেয়ে তাঁকে উদ্ধার করে রায়গঞ্জ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

- Advertisement -

জখম ছাত্রের মা সবেদা বেগম বলেন, ‘ওই শিক্ষিকা ও তার স্বামী দেবদাস প্রাইভেট টিউশনি পড়ান। সেখানেই এদিন এই ঘটনা ঘটে। ‘বাবা আলিম সরকার বলেন, ‘আমার ছেলেকে মারধর করার পাশাপাশি। গোপনাঙ্গে বিচুটি পাতা ঘষে দেওয়া হয়।‘ স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্যার স্বামী সাহেব আলী বলেন, ‘অভিযুক্ত শিক্ষিকা ও তাঁর স্বামী মেরে ছাত্রকে অজ্ঞান করে দেয়। থানায় এই বিষয়ে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।‘ কর্ণজোড়া ফাঁড়ির এক পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত চলছে।‘ যদিও অভিযুক্ত শিক্ষক দম্পতির কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।