খালি হাতেই চিতাবাঘের মোকাবিলা যুবকের

136
ছবি: প্রতীকি

নাগরাকাটা: সাইকেলে সওয়ার এক যুবকের ওপর অতর্কিতে হামলা চালাল চিতাবাঘ। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে পড়ে গিয়ে খালি হাতেই বুনোটির সঙ্গে আপ্রাণ লড়াই চালালেন এক যুবক। হাড়হিম করা ওই ঘটনাটি ঘটে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বামনডাঙ্গা চা বাগানের মডেল ভিলেজের সামনে। গুরুতর জখম যুবকের নাম সানিয়াল ওরাওঁ। বর্তমানে তিনি মাল সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। বন দপ্তরের খুনিয়া রেঞ্জের রেঞ্জার রাজকুমার লায়েক বলেন, ‘আহতর চিকিৎসার দ্বায়িত্ব বন দপ্তরই বহন করছে।‘

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সন্ধ্যে সাড়ে ছ‘টা নাগাদ সানিয়াল বাগানের জয় বাংলা লাইন থেকে সাইকেলে চেপে সেখানকার মডেলে ভিলেজে যাচ্ছিলেন ওই যুবক। তাঁর বাড়ি সেখানেই। ওই মডেল ভিলেজের একদম কাছে রাস্তার ওপর আচমকাই একটি চিতাবাঘ তাঁর ওপর অতর্কিতে হামলা চালায়। টাল সামলাতে না পেরে তিনি সেখানে পড়ে যান। এরপর শুরু হয় বুনো-মানুষের অসম দ্বৈরথ। খালি হাতেই লড়ে কোনরকমে তিনি চিতাবাঘটিকে হার মানাতে পারলেও গুরুতর জখম হন তিনি। তাঁর চোখে, মাথায় চিতাবাঘটি থাবা বসায়। রক্তাক্ত অবস্থায় স্থানীয়রা তাঁকে উদ্ধার করে প্রথমে বাগানের হাসপাতালে ও পরে সুলকাপাড়া গ্রামীন হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর মালবাজার সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে তাঁকে রেফার করা হয় তাঁকে।

- Advertisement -

বাগানের পঞ্চায়েত সদস্য লালচাঁদ ওরাওঁ বলেন, ‘হাতির হামলা তো লেগেই রয়েছে। এবার চিতাবাঘের উপদ্রব শুরু হল। মডেল ভিলেজের মতো জনবসতিপূর্ণ এলাকার ঠিক সামনে ওই ঘটনায় স্থানীয়রা আতঙ্কে রয়েছেন।’

বন দপ্তরের অনারারি ওয়াইল্ড লাইফ ওয়ার্ডেন সীমা চৌধুরি বলেন, ‘চিতাবাঘটিকে ধরতে যাতে দ্রুত সেখানে খাঁচা পাতা হয় বন দপ্তরকে বলা হচ্ছে। ডুয়ার্সে বুনো-মানুষের দ্বৈরথের ঘটনা ক্রমেই বাড়তে থাকার বিষয়টি নিয়ে বন দপ্তরের শীর্ষ মহলকে জানানো হয়েছে।’