যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার

262

রায়গঞ্জ: এক যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল। বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জের উকিলপাড়া এলাকায়। ভাড়াবাড়ির শোওয়ার ঘর থেকে ওই যুবকের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় পুলিশ। মৃতের নাম বিশাল চক্রবর্তী(২৫)। পেশায় ফার্মাসিস্ট। দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটের মিস্ত্রিপাড়ার বাসিন্দা। মৃতের জামার পকেট থেকে হাতে লেখা একটি চিরকুট উদ্ধার করে ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, সুইসাইড নোটে স্পষ্ট লেখা রয়েছে। আমার মৃত্যুর জন্য ডাক্তার শান্তনু দাস ও ওনার ওয়াইফ দায়ী। মিথ্যা অপবাদ ছড়ানোর জন্য আমাকে রেজিগনেশন দিতে বাধ্য করানো হয়। আমার মৃত্যুর পর আমার পরিবারকে ৩০ লক্ষ টাকা, আমার মানহানি ও মৃত্যুর জন্য ডাক্তার শান্তনু দাস ও ওয়াইফ যেন বাধ্য থাকে।’

- Advertisement -

মৃতের বিধবা মা মিলি চক্রবর্তীর অভিযোগ, ‘নার্সিংহোমের মালিকের প্রতারণায় অপমানিত হয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য হয়েছে। ছেলেকে  আত্মহত্যা করাতে বাধ্য করে ডাক্তার ও তাঁর স্ত্রী।‘ মৃতের দিদি মিলি চক্রবর্তী (ভট্টাচার্য) বলেন, ‘আমার একমাত্র ভাইয়ের মৃত্যুর জন্য ডাক্তার শান্তনু দাস সম্পূর্ণভাবে দায়ী। আমার ভাইয়ের মৃত্যুর ন্যায্য বিচার চাই।‘ তবে এ ব্যাপারে শহরের উকিলপাড়ার ওই বেসরকারি নার্সিং হোমের মালিক শান্তনু দাসকে রায়গঞ্জ পুলিশ সুপার সুমিত কুমার বলেন, ‘ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হাতে না আসা পর্যন্ত কোনও কিছু বলা সম্ভব নয়।‘ একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু হয়েছে।