সোনার দোকানে চুরি, সিসিটিভি ক্যামেরার হার্ডডিস্ক নিয়ে চম্পট দুষ্কৃতী

215

বর্ধমান: সোনা, রুপোর গয়না বানানোর দোকানে চুরি। শনিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে পূর্ব বর্ধমানের ভাতারের কামারপাড়ার একটি দোকানে। রবিবার সকালে ঘটনা চাউড় হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে ভাতারের ব্যবসায়ী মহলে। পরবর্তীতে দোকান মালিক অর্থাৎ ব্যবসায়ী দ্বারকানাথ দাস পুলিশে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে চুরির তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

শনিবার রাতে চুরির ঘটনাটি ঘটে। রবিবার সকালে দোকান মালিক ঘটনাস্থলে এসে পুরো ঘটনা প্রত্যক্ষ করেন। দোকানের সার্টার ভাঙা, প্রত্যেকটি তালা ভাঙা পাশাপাশি দোকানের ভেতরে থাকা ভল্ট ভেঙ্গে প্রায় ২৫ লক্ষ টাকার গয়না উধাও। এছাড়াও সিসি ক্যামেরা ঘুরিয়ে রেখে সিসিটিভির হার্ডডিস্ক নিয়ে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা।

- Advertisement -

দোকান মালিক দ্বারকানাথ দাস জানান, শনিবার রাতে দোকান বন্ধ করে তিনি বাড়ি চলে যান। দোকান থেকে কিছুটা দূরেই তাঁর বাড়ি। রবিবার সকালে স্থানীয় কয়েকজন দেখতে পান তাঁর দোকানের সার্টার ভাঙা। পরবর্তীতে তিনি ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি আরও জানান, ২০০৯ সালে তাঁর দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছিল। ফের শনিবার রাতে ঘটল। দোকান থেকে ৩০০ গ্রামের বেশি সোনার গয়না, ৫ কেজির বেশি রূপো ও নগদ টাকা সহ প্রায় ২৫ লক্ষ টাকা মূল্যের সামগ্রী খোয়া গেছে।

ভাতারের কামারপাড়ার ব্যবসায়ীরা বলেন, ‘রাতে আমাদের বাজার এলাকায় নিরাপত্তার কোন ব্যবস্থা নেই।‘ এদিন দ্বারকানাথ দাস সহ অন্য সকল ব্যবসায়ীরা কামারপাড়া বাজারে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করার দাবি পুলিশের কাছে জানিয়েছেন।