সামাজিক দূরত্ব ও মাস্কের নেই বালাই! সংক্রমণ বৃদ্ধির আশঙ্কা

94

মেখলিগঞ্জ: করোনা ভাইরাস এখন পৃথিবী জুড়ে এক পরিচিত নাম। প্রায় বছর খানেক আগে করোনা ভাইরাস থাবা বসায় আমাদের দেশ সহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে। করোনা ভাইরাসের প্রভাব থেকে বাঁচতে দীর্ঘদিন লক ডাউন ঘোষণা হয় দেশজুড়ে। বর্তমানে করোনা ভাইরাসের প্রতিষেধক দেওয়া শুরু হলেও দেশের প্রতিটি নাগরিক কে এখনো তা দেওয়া সম্ভব হয়নি। অন্য দিকে প্রতিষেধক নেওয়ার পরেও সামাজিক দূরত্ব মেনে, মাস্ক পরে চলা ফেরা করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে সরকারের তরফে।

কিন্তু ঠিক তার বিপরীত চিত্র চোখে পড়ছে কোচবিহার জেলার সীমান্ত ঘেঁষা মহকুমা শহর মেখলিগঞ্জে। মেখলিগঞ্জের হাটে বাজারে চোখ মেললে দেখা যায় যে মেখলিগঞ্জের অধিকাংশ মানুষ স্বাস্থ্যবিধি না মেনেই চলা ফেরা করছেন। অন্য দিকে দেশে ফের করোনা সংক্রমণ বাড়ছে। করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ মাথাব্যথার কারণ হয়ে ওঠার আগেই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কঠোর হোক প্রশাসন বলেই জোরালো দাবি তুলেছে মেখলিগঞ্জের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলো।

- Advertisement -

গোদের ওপর বিষফোঁড়া হলো রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচনের নির্ঘন্ট প্রকাশ হওয়ায় একে অপরকে টেক্কা দিতে আদা জল খেয়ে মাঠে নেমেছে রাজনৈতিক দলগুলো। মেখলিগঞ্জও তার ব্যাতিক্রম নয়। মাস্ক ও সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করেই ডান-বাম সমস্ত রাজনৈতিক দলের মিটিং মিছিল জনসভার কর্মসূচি চলছে জোরকদমে।

মেখলিগঞ্জের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নর্থ বেঙ্গল সায়েন্স এন্ড কালচারাল সোসাইটির কর্ণধার দিব্যায়ন সরকার বলেন, ‘করোনা এখনও সম্পূর্ণভাবে বিদায় নেয়নি। এই অবস্থায় মেখলিগঞ্জে প্রায় ৯৫ শতাংশ মানুষ মাস্ক ও সামাজিক দূরত্বের তোয়াক্কা না করেই চলাফেরা করেছেন। যা পরবর্তীতে মেখলিগঞ্জের জন্য বিরাট বিপদ ডেকে আনতে পারে। দেশে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়তে চলেছে। তাই এখনি সকলের সচেতন হওয়া প্রয়োজন। প্রশাসনের বিষয়টি শক্ত হাতে দেখা উচিত।’

মেখলিগঞ্জের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন কিশলয়ের তরফে প্রভাত পাটনী বলেন, ‘রাজনৈতিক কর্মসূচিগুলিতে বেশির ভাগ মানুষ মাস্ক না পড়ে ও সামাজিক দূরত্ব না মেনেই অংশগ্রহণ করছেন। এক্ষেত্রে মানুষকে যেমন সচেতন হওয়া প্রয়োজন তেমনি রাজনৈতিক দলগুলির ও এই বিষয়ে সচেতন হওয়া প্রয়োজন। নয়তো আগামীতে মেখলিগঞ্জবাসীর জন্য খুব খারাপ সময় অপেক্ষা করছে।’

মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতালের সুপার কাশীনাথ পাঁজা বলেন, ‘এর থেকে বাঁচতে হলে ভ্যাকসিনের পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা, স্যানিটাইজার ব্যাবহার করা,  মাস্ক অবশ্যই পড়া।’

যদিও মেখলিগঞ্জের মহকুমাশাসক রাম কুমার তামাংকে উক্ত বিষয়ে প্রশ্ন করা হলেও এই বিষয়ে তাঁর কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।