উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা ৫০ নম্বরে

শিলিগুড়ি : উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনস্থ কলেজগুলির স্নাতকস্তরের তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা ১০০ নম্বরের বদলে ৫০ নম্বরে হবে। অনার্সের জন্য দুই ঘণ্টা ও জেনারেল বিষয়ে পরীক্ষার জন্য দেড় ঘণ্টা সময়সীমা ধার্য করা হয়েছে। প্রশ্নপত্র ডাউনলোড ও পরীক্ষার পর উত্তরপত্র কলেজের ওয়েসাইটে আপলোড বা কলেজে গিয়ে জমা দিয়ে আসার জন্য পড়ুয়াদের অতিরিক্ত আধ ঘণ্টা সময় দেওয়া হবে। সোমবার উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের বৈঠকের পর এই সিদ্ধান্ত হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ামক ডঃ দেবাশিস দত্ত বলেন, বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি)-এর নির্দেশ মেনে পরীক্ষা পদ্ধতি ঠিক করা হয়েছে। এদিন সকালে ইউজিসির তরফে পরীক্ষার সময়সীমা পরিবর্তন সংক্রান্ত একটি নির্দেশিকা আসে। এরপরই পরীক্ষার নম্বর ৫০ শতাংশ কমানোর পাশাপাশি সময়সীমা কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কটা থেকে পরীক্ষা শুরু হয়ে কতক্ষণ চলবে তা আমরা বুধবার জানাব।

পরীক্ষার সময়সীমা ২৪ ঘণ্টা করা নিয়ে আপত্তি তুলে নিয়ম বদলের জন্য ইউজিসি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়কে চিঠি দিয়েছিল। ওই চিঠি পেয়ে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় ঘরে বসে পরীক্ষা দেওয়ার ক্ষেত্রে ২৪ ঘণ্টা সময়সীমা বদলে ফেলতে চলেছে। অন্যদিকে, ইউজিসির চিঠি পাওয়ার আগেই উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় পরীক্ষার সময়সীমা বদলে ফেলতে চলেছিল। তবে সোমবারই নির্দিষ্ট নির্দেশিকা চলে আসে। প্রতিটি পরীক্ষার জন্য প্রশ্নপত্র ডাউনলোড থেকে উত্তরপত্র অনলাইনে জমা দেওয়া পর্যন্ত পড়ুয়ারা ২৪ ঘণ্টা সময়সীমা পাবেন বলে কথা ছিল। কিন্তু এ নিয়ে আপত্তি তুলে ইউজিসি জানায়, বাড়িতে বসে বই দেখে পরীক্ষা দেওয়ার জন্য ২৪ ঘণ্টা সময় দেওয়া যাবে না। ইউজিসি স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেয়, পরীক্ষার সময়সীমা বাদে প্রশ্নপত্র ডাউনলোড ও উত্তরপত্র আপলোডের জন্য সর্বোচ্চ এক ঘণ্টার সময়সীমা মিলবে।

- Advertisement -

অর্থাৎ সব মিলিয়ে অনার্সের পড়ুয়ারা চার ঘণ্টা এবং জেনারেল কোর্সের পড়ুয়ারা তিন ঘণ্টা সময় পাবেন। পরীক্ষা শুরুর আধ ঘণ্টা আগে প্রশ্নপত্র ওয়েবসাইটে আপলোড করে দেওয়া হবে। পরীক্ষা শেষে উত্তরপত্র কলেজের ওয়েবসাইটে আপলোড করার জন্য আধ ঘণ্টা সময় মিলবে। পরীক্ষার সময়সীমা কমানোর পাশাপাশি উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরীক্ষার নম্বর ৫০ শতাংশ কমিয়ে দেয়। নতুন নিয়মে ঠিক হয়েছে পরীক্ষা শুরুর ১৫ মিনিট আগে প্রশ্নপত্র ওয়েসাইটে আপলোড করা হবে। পরীক্ষা শেষে উত্তরপত্র কলেজ ওয়েসাইটে আপলোডের জন্য ১৫ মিনিট সময় মিলবে। কেউ উত্তরপত্র ওয়েবসাইটের বদলে ওই সময়সীমার মধ্যে কলেজে গিয়ে জমা দিতে পারবেন। তবে ওয়েবসাইটে উত্তরপত্র জমা দিলে কলেজে হার্ডকপি জমার প্রয়োজন হবে না।

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে তরফে নির্দেশিকা দিয়ে জানানো হয়েছিল, প্রতিটি পরীক্ষার আগের দিন বেলা ৫টায় প্রশ্নপত্র ওয়েসাইটে আপলোড করা হবে। পড়ুয়ারা ঘরে বসে পরীক্ষা দেওয়ার পর উত্তরপত্র পরদিন বেলা ৫টার মধ্যে ওয়েবসাইটে আপলোড করতে পারবেন। গ্রামাঞ্চলে ইন্টারনেট পরিষেবা অনেকটাই দুর্বল হওয়ায় সেখানকার পডুয়াদের দিকে তাকিয়ে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। পড়ুয়ারা ইতিমধ্যে পরীক্ষার জন্য অ্যাডমিট কার্ড ডাউনলোড করে নিয়েছেন। কবে কোন পরীক্ষা হবে সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে তরফে রুটিন প্রকাশ করা হয়েছে। সেই রুটিন প্রতিটি কলেজে পাঠানো হয়েছে। ২ অক্টোবর থেকে ৬ অক্টোবর পর্যন্ত স্নাতকস্তরের পরীক্ষা চলবে। ৩১ অক্টোবরের মধ্যে স্নাতকস্তরের ফাইনাল পরীক্ষার ফলপ্রকাশ হবে।