নেপথ্যে করোনা, বলিউড ছেড়ে মোমোর দোকান সামলান এই মেয়ে

109

উত্তরবঙ্গ সংবাদ নিউজ ডেস্ক: এক সময় দাপটের সঙ্গে বলিউডে নিজের পরিচিতি গড়ে তোলার কাজ করে চলছিলেন। তবে, রঙিণ পর্দার আলোর ঝলকানিতে নয়। ক্যামেরার পেছনে থেকেই বেশ সুনাম অর্জন করে চলেছিলেন তিনি। তবে বাধ সাঁধল করোনা। অন্যদের মতোন কাজ হারিয়ে বাড়ি ফিরতে হয় তাঁকেও। শেষ অবধি সংসারের হাল ধরতে পেশা বদলের সিদ্ধান্ত নেন। একান্ত উদ্যোগে খোলেন মোমোর দোকান। তিনি সুচিস্মিতা রাউত্রে।

ওডিশার কটক শহরের বাসিন্দা সুচিস্মিতা রাউত্রে। বয়স মাত্র ২২। বছর কয়েক আগে সহকারী ক্যামেরাম্যান হিসেবে বলিউডে পা রাখেন তিনি। সুনামের সঙ্গেই কাজ করে চলছিলেন তিনি। করোনা মহামারির জেরে অন্যান্যদের মতোন তিনিও সমস্যায় পড়েন। বাড়ি ফেরার সামান্য টাকাও ছিল না তেঁর হাতে। শেষ অবধি বিগ-বি অমিতাভ বচ্চন এবং বলিউডের বাদশাহ শাহরুখ খানের অর্থ সাহায্যে অন্যান্য ক্রু মেম্বারদের পাশাপাশি তিনিও বাড়ি ফেরেন। এরপর পরিস্থিতি খানিক স্বাভাবিক হওয়ার পর বলিউডে নতুন করে কর্ম ব্যস্ততা শুরু হলেও চেনা ছন্দে ফেরা হয়নি সুচিস্মিতার। তিনি ব্যস্ত তাঁর এক চিলতে মোমোর দোকান সামলাতে।

- Advertisement -

সুচিস্মিতার কথায়, মুম্বইতে থাকাকালীন বন্ধুদের থেকে মোমো তৈরির একটি রেসিপি আয়ত্ব করেছিলেন। সেই রেসিপি অনুকরণ করেই নিজের দোকান সামলে চলেছেন তিনি। দিনপিছু গড়ে ৩০০ টাকা আয় হচ্ছে। কোনওমতে চলছে সংসার।