অনুব্রতর গড়ে এবার অস্তিত্ব জানান দিল ‘দাদার’ অনুগামীরা

418

বর্ধমান: এবার খোঁদ অনুব্রতর মণ্ডলের গড়ে অস্তিত্বের জানান দিল দাদা অর্থাৎ শুভেন্দু অধিকারীর অনুগামীরা। ‘লড়াইয়ের মাঠে দেখা হবে’ এমন উদ্ধৃতি লেখা শুভেন্দুর ছবি সহ ফ্লেক্সের ছড়াছড়ি রবিবার দেখা গেল পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের বিল্বগ্রাম অঞ্চলে। যা নিয়ে ইতিমধ্যে আউশগ্রামের রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

রাজ্যের অন্যান্য জেলার পাশাপাশি পূর্ব বর্ধমানেও অস্তিত্ব জানান দিয়ে চলেছে দাদার অনুগামীরা। ইতিপূর্বে জেলার কাটোয়া, মেমারি, পূর্বস্থলী, জামালপুর সহ নানা জায়গায় দাদার অনুগামীরা অস্তিত্ব জানান দিয়েছিল। যদিও মন্ত্রিত্ব ছাড়ার পর দাদা তৃণমূল কংগ্রেস ছাড়ছেন কিনা বা বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন কিনা তা নিয়ে তিনি এখনও ধোঁয়াসা জিয়েই রেখেছেন।

- Advertisement -

আউশগ্রামের বিল্বগ্রাম পঞ্চায়েত অফিস ছাড়াও রেলস্টেশন সংলগ্ন লাইটপোস্টে ও গাছে এদিন ঝুলতে দেখাযায় দাদার অনুগামীদের লাগানো ফ্লেক্স। এই বিষয়ে বিল্বগ্রাম অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেস নেতা ভবতারণ কোনার বলেন, বিক্ষুব্ধ আর বিরোধীরা এইসব কাজ করছে।

অন্যদিকে আউশগ্রাম ১ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি সেখ সালেক রহমান দাবি করেন, ‘মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্যই রাতের অন্ধকারে বিজেপির লোকজন এই সব ফ্লেক্স লাগাচ্ছে ।তবে এতে কিছু লাভ হবে না।’
আউশগ্রামের দলীয় পর্যবেক্ষক তথা বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল এই বিষয়টিকে কোন গুরুত্বই দিতে চাননি। তাঁর বক্তব্য, ‘কাজ নাই তো কি করবে। তাই এইভাবে বিরোধীরা করছে।’

নেতারা এমনটা বললেও দাদার অনুগামীদের অস্তিত্ব জানান দেবার বিষয়টি হালকাভাবে নিচ্ছেন না আউশগ্রামের সাধারণ তৃণমূল কর্মীরা। তাঁরা এই ঘটনা নিয়ে সিঁদুরে মেঘ দেখছেন। যদিও বিজেপির জেলা সভাপতি সন্দীপ নন্দী বলেন, ‘তৃণমূল কংগ্রেসের নেতাঁরা এখন সবেতেই বিজেপি ভূত দেখছে। তাই তাঁরা বিজেপির বিরুদ্ধে যা খুশি তাই বলে দিচ্ছে।’