ভোট গ্রহণ কেন্দ্রের দাবিতে ভোট বয়কটের হুমকি

588

পারডুবি: আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও সংগঠনগুলো দলীয় শক্তিকে মজবুত করতে ইতিমধ্যে তৎপর হয়ে উঠেছে। এদিকে নির্বাচনের কথা মাথায় রেখে বুধবার মাথাভাঙ্গা ২ ব্লকের পারডুবি গ্রাম পঞ্চায়েতের পোড়াবারি এলাকায় ২/১১৩ নম্বর বুথের ভোটাররা ভোট গ্রহণ কেন্দ্রের দাবি জানিয়ে সরব হন। আসন্ন ভোটের আগে এলাকায় ভোট গ্রহণ কেন্দ্র না হলে ভোট বয়কটের হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন তারা।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এলাকায় সাতশোর বেশি ভোটার রয়েছেন। কিন্তু, এলাকায় কোনও ভোট গ্রহণ কেন্দ্র না থাকায় ভোটদানে তিন কিমি দূরে টাপুরডাঙ্গা ভোট গ্রহণ কেন্দ্রে জানা যায়। এরই প্রতিবাদে স্থানীয় বাসিন্দারা এদিন পোড়াবারি শিশু শিক্ষা কেন্দ্রের মাঠে জমায়েত করে ভোট গ্রহণ কেন্দ্র গড়ে তোলার দাবি জানিয়ে সরব হন।

- Advertisement -

স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে সুরেশ বর্মন, দিলীপ বিশ্বশর্মা, কন্ঠ বর্মন, কনিকা বর্মন, তুলসী বর্মন, সনেকা বর্মন প্রমুখ জানান, প্রায় তিন কিমি দূরে গিয়ে ভোট দিতে হয়। এরফলে বৃদ্ধ, মহিলাদের চরম সমস্যায় পড়তে হয়। অথচ এলাকায় একটি শিশু শিক্ষা কেন্দ্র রয়েছে, যথোপযুক্ত পরিবেশ ও রয়েছে ভোট গ্রহণ কেন্দ্রের, এরপরেও প্রশাসন ভোট গ্রহণ কেন্দ্র খোলার বিষয়ে পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

স্থানীয় সূত্রে খবর, টাপুরডাঙ্গা ও পোড়াবারির জন্য একটি বুথ ছিল। এরপর বুথ ভাগ হয়ে যায়। তা প্রায় আট নয় বছর আগের কথা। কিন্তু বুথ ভাগ হলেও আলাদা ভোট গ্রহণ কেন্দ্র করা হয় নি বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। তৃণমূল কংগ্রেসের মাথাভাঙ্গা বিধানসভা কমিটির সদস্য মহেশ রায় জানান, ওই এলাকায় ভোট গ্রহণ কেন্দ্র না থাকায় স্থানীয় বাসিন্দাদের সমস্যায় পড়তে হয়। প্রশাসন দ্রুত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে জনসাধারণের দাবি পূরণ করুক।

সিপিএম নেতা সুচিত্র সরকার জানান, ভৌগোলিক দিক থেকে বিচার করে অনেকটা দূরে গিয়ে বাসিন্দাদের ভোট দিতে হয়। তাদের দাবি প্রাসঙ্গিক। বিজেপি জেলা সহ সভাপতি প্রতাপ সরকার বলেন, এলাকার বয়স্ক, মহিলাদের তিন কিমি দূরে টাপুরডাঙ্গা গিয়ে ভোট দিতে যেতে অসুবিধা হয়। স্থানীয় শিশু শিক্ষা কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ কেন্দ্র চালু করুক প্রশাসন। কোচবিহারের জেলাশাসক পবন কাদিয়ান জানান, বিষয়টি বিডিও স্তরে পরিচালিত হয়। এবিষয়ে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি এবং রাজনৈতিক দলগুলির পরামর্শ মেনে সমস্যার সমাধান হবে।