১৩টি হরিণের শিং সহ রাঙ্গালিবাজনায় ধৃত তিন

1807

রাঙ্গালিবাজনা: সোমবার আলিপুরদুয়ার জেলার রাঙ্গালিবাজনায় বিকেল সাড়ে চারটে নাগাদ ১৩টি হরিণের শিং সহ তিন যুবককে আটক করলেন এসএসবি ফালাকাটার ১৭ নম্বর ব্যাটেলিয়নের জওয়ান, ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরো ও বনদপ্তরের জলদাপাড়া পশ্চিম রেঞ্জের কর্মীরা। সোনাপুর থেকে তাড়া করে তিন পাচারকারীকে রাঙ্গালিবাজনায় আটক করা হয় বলে এসএসবি সূত্রের খবর। নেতৃত্বে ছিলেন এসএসবি ফালাকাটার ১৭ নম্বর ব্যাটেলিয়নের সেকেন্ড ইন কমান্ড আর কে শ্রীবাস্তব, জলদাপাড়া পশ্চিমের রেঞ্জার বিশ্বজিৎ বিষই ও ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরোর এক আধিকারিক। হরিণের শিং সহ বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে একটি ছোট গাড়ি ও একটি মোটরবাইক। আটক করা হয়েছে দীঘলটাড়ির সিকন্দর আলি, সিঙ্গিমারির আজিজুল হক ও সোনাপুরের বাবলা বর্মন নামে তিন পাচারকারিকে।

১৩টি হরিণের শিং সহ রাঙ্গালিবাজনায় ধৃত তিন| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

- Advertisement -

এসএসবি সূত্রের খবর, তিন পাচারকারীর মধ্যে সোনাপুরের বাবলা বর্মন ছিলেন লিংকম্যান। মোটরবাইকে চেপে বাকি দুই পাচারকারীকে পথ দেখিয়ে নিয়ে যাচ্ছিলেন বাবলা। একসঙ্গে এতগুলি হরিণের শিং বাজেয়াপ্ত করার পর বিষয়টি যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়েই দেখছে বনদপ্তর। পাচারকারীরা স্রেফ শিং কেনাবেচা করতেন, না কি হরিণ নিধনের সঙ্গে প্রত্যক্ষভাবে যুক্ত, তা জানতে তাঁদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে বনদপ্তর সূত্রের খবর।

জলদাপাড়া জাতীয় উদ্যান বিভাগের সহকারী বন্যপ্রাণ সংরক্ষক দেবদর্শন রায় বলেন, ‘ইন্ডিয়ান ফরেস্ট অ্যাক্ট (১৯২৭) ও ওয়াইল্ড লাইফ প্রোটেকশন অ্যাক্টে (১৯৭২) মামলা দায়ের করা হচ্ছে। ধৃতদের মঙ্গলবার আলিপুরদুয়ারের এসিজেএম-২ আদালতে তোলা হবে।