ফাঁসিদেওয়া, ১৯ নভেম্বরঃ দিন কে দিন মোটরবাইক চুরির ঘটনা বাড়ছিল। শুধু শহর শিলিগুড়ি নয়, এধরণের ঘটনা শিলিগুড়ি মহকুমা পরিষদ এলাকাতেও ঘটেছিল। এবারে গোপন সূত্রের খবরের ভিত্তিতে অভিযানে নেমে দার্জিলিং জেলা পুলিশের ফাঁসিদেওয়া থানা বড় সাফল্য পেল। সোমবার খবর অনুযায়ী ফাঁসিদেওয়া থানার অন্তর্গত একাধিক এলাকায় ঘোষপুকুর ফাঁড়ির ওসি অভিজিৎ বিশ্বাস এবং বিধাননগর তদন্ত কেন্দ্রের ওসি মানস দাস অভিযান চালায়। আর তাতেই ১ জন পুরোনো বাইক চোর সহ আরও দুই জন বাইক চোর ধরা পড়ে। ঘটনায় মোট ৩টি দামী বাইকও উদ্ধার হয়েছে। ধৃতরা হল শিলিগুড়ির নিউ জলপাইগুড়ির বাসিন্দা মার্ক ডিকোস্টা, চোপড়া থানার অন্তর্গত ঝাড়বাড়ি এলাকার বাসিন্দা ইমরান আলী, চোপড়া থানার অন্তর্গত পানচার্চ এলাকার বাসিন্দা মহম্মদ কাইসারুল হক। এদের মধ্যে মার্ক ডিকোস্টা এর আগেও বাইক চুরির অভিযোগে জেলও খেটেছিল বলে পুলিশ সূত্রে খবর৷ উদ্ধার হওয়া মোটরবাইক ফাঁসিদেওয়া থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। মঙ্গলবার ধৃতদের শিলিগুড়ি মহকুমা আদালতে তোলা হবে। গ্রামীণ ডিএসপি অচিন্ত্য গুপ্ত জানিয়েছেন, ইতিমধ্যেই বাইক চুরির অভিযোগে ৩জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। ৩টি দামি মডেলের বাইকও উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার পূর্ণাঙ্গ তদন্তও করে এরা আর কোনও সক্রিয় বাইক চুরির চক্রের সাথে জড়িত কিনা তাও খতিয়ে দেখা হবে।