বিজেপির হয়ে কাজ করছে পুলিশের একটা অংশ, অভিযোগ তৃণমূল নেতার

157

দিনহাটা: বিজেপির হয়ে কাজ করছে পুলিশের একটা অংশ। এমনই চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুললেন তৃণমূল কংগ্রেসের ভেটাগুড়ি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের দায়িত্বপ্রাপ্ত পর্যবেক্ষক জয়দীপ ঘোষ। মঙ্গলবার পুলিশি নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলে দিনহাটা শহর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের তরফে থানার সামনে হওয়া অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচিতে এমনই দাবি করলেন জয়দীপবাবু। তাঁর কথায়, ‘ভেটাগুড়ি সহ দিনহাটা থানার অধীনে একাধিক গ্রাম পঞ্চায়েতে বিজেপি সন্ত্রাস চালালেও পুলিশ পক্ষপাতমূলক আচরণ করছে।’ শুধু তাই নয়, তাঁর অভিযোগ, পুলিশের একটি অংশ বিজেপির হয়ে কাজ করছে। আর সেকারণে তাঁদের দলের কর্মী-সমর্থকরা যখন আক্রান্ত হচ্ছেন, তখন দিনহাটা থানায় অভিযোগ করলেও পুলিশ দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নিচ্ছে না। আর সেই নিষ্ক্রিয়তার অভিযোগকে সামনে রেখেই আজকের অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি।’

এদিনের অবস্থান বিক্ষোভে জয়দীপ ঘোষ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের ভেটাগুড়ি ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের সভাপতি অনন্ত বর্মন, তৃণমূল নেতা বিশু ধর, বিশ্বনাথ দে আমিন, মৌমিতা ভট্টাচার্য সহ অন্যান্যরা। এদিন উপস্থিত সকলেই অবস্থান মঞ্চ থেকে পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। তৃণমূল নেতা বিশু ধর হুঁশিয়ারির সুরে পুলিশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়ে জানান, পুলিশ যদি বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীদের ধরতে না পারে তবে সেই দুষ্কৃতীদের দেখে নেওয়ার ক্ষমতা তৃণমূলের আছে এবং পুলিশ প্রশাসনের ওপর আস্থা রেখেই এতদিন তারা কোনও পদক্ষেপ করেনি। কিন্তু এরপরেও পুলিশ যদি নিষ্ক্রিয় থাকে তবে তাদের কর্মীরাই ব্যবস্থা নেবে এই সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে। এদিন অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচি ছাড়াও দিনহাটা থানার আইসির হাতে স্মারকলিপি তুলে দেন তাঁরা।

- Advertisement -

এই অভিযোগ সম্পর্কে দিনহাটা থানার আইসি সঞ্জয় দও জানান, তাঁরা যখন যেরকম অভিযোগ পেয়েছেন তার বিরুদ্ধেই ব্যবস্থা নিয়েছেন। এদিনের স্মারকলিপি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘স্মারকলিপি হাতে পেয়েছি। দেখে নিয়ে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

তৃণমূলের অবস্থান বিক্ষোভ কর্মসূচিকে কটাক্ষ করে বিজেপির জেলা সম্পাদক সুদেব কর্মকার বলেন, ‘তৃণমূলের পায়ের তলার মাটি সরে গিয়েছে। তাই এধরনের কর্মসূচি।’