তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত শীতলকুচি, আহত ১

743

শীতলকুচি, ২৪ অক্টোবরঃ তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল কোচবিহারের শীতলকুচি। বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় আহত হলেন এক তৃণমূল কর্মী। আহত ওই তৃণমূল কর্মীকে  কোচবিহারের একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে ভরতি করা হয় । পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শীতলকুচি থানার পুলিশ।

স্থানীয় সুত্রে জানা গিয়েছে, এদিন দুপুরে শীতলকুচির বিডিও অফিস মোড়ে এক টোটো চালকের সঙ্গে ঝামেলা হয় এক তৃণমূল সমর্থকের। জানা গিয়েছে, ওই টোটো চালক বিজেপি সমর্থক। ঘটনাকে কেন্দ্র করে দফায় দফায় সংঘর্ষ হয় শীতলকুচিতে। এরপরই তৃণমূলের সমর্থকরা শীতলকুচি বিজেপি নেতা খোকন মণ্ডলের বাড়ি সামনে গেলে সেখানেও তৃণমূল ও বিজেপি সংঘর্ষ হয়। পুড়িয়ে দেওয়া হয় তৃণমূল সমর্থকদের তিনটি বাইক। সেখানে এক তৃণমূল কর্মীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানোর অভিযোগ ওঠে বিজেপির বিরুদ্ধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় শীতলকুচি থানার পুলিশ ও শীতলকুচি দমকলের একটি ইঞ্জিন। এই বিষয়ে বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য হেমচন্দ্র বর্মন বলেন, এদিন আচমকাই শীতলকুচি বিডিও অফিস মোড়ে তৃণমূলের বাইক বাহিনী এসে এক বিজেপি কর্মীকে মারধর করে। বাইকবাহিনী রথের ডাঙ্গা বাজার সংলগ্ন  বিজেপির স্থানীয় মন্ডল সম্পাদক খোকন মণ্ডলের বাড়িতে হামলা করে। তাঁর বাড়ি লক্ষ্য করে গুলি ও বোম ফাটায়। স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা সায়ের আলি মিয়াঁ বলেন, এদিন কয়েকজন তৃণমূল সমর্থক রথেরডাঙ্গা এলাকায় আত্মীয়ের বাড়ি থেকে ফেরার সময় বিজেপি নেতা খোকন মণ্ডলের বাড়ি থেকে সশস্ত্রবাহিনী বেড়িয়ে এসে তৃণমূল কর্মীদের হামলা করে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে ঘড়ি মিয়াঁ নামে এক তৃণমূল দেওয়া হয়।’ পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে, এই ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

- Advertisement -