লাটাগুড়ি, ২৮ জুনঃ গ্রাম সংসদ সভাকে কেন্দ্র করে বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ। ঘটনায় আহত হয়েছেন দু’পক্ষের সাতজন। আহতদের ময়নাগুড়ি গ্রামীণ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তাঁদের মধ্যে দুজনের অবস্থা গুরুতর। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘটনাটি ঘটে মাল ব্লকের চাপাডাঙ্গা গ্রাম পাঞ্চায়েত কার্যালয় চত্বরে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা দেখা দেয়। পরে ক্রান্তি ফাঁড়ির পুলিশ ও মালবাজার থেকে র‍্যাফ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়। এলাকায় পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।

বিজেপির মাল পশ্চিম মন্ডলের শক্তি কমিটির সভাপতি বিমলকুমার রায়ের অভিযোগ, গ্রাম সংসদ সভা শেষ হওয়ার পর তাঁদের সমর্থকরা বাড়ি ফিরছিলেন। সেই সময় তৃণমূলের কয়েকজন তাঁদের ওপর হামলা চালায়। ঘটনায় তাঁদের পাঁচ সমর্থক আহত হয়েছেন। বিমলবাবুর অভিযোগ, লোকসভা নির্বাচনে পরাজয়ের পর থেকে তৃণমূল সর্বত্র সন্ত্রাসের পরিবেশ সৃষ্টি করছে।

এদিকে, তৃণমূলের ক্রান্তি ব্লক সভাপতি শ্যামল বিশ্বাসের অভিযোগ, বিজেপি সর্বত্র গ্রাম সংসদ সভাগুলো ভেস্তে দিতে চাইছে। এই সংসদ সভাতেই আগামী এক বছর গ্রাম পঞ্চায়েতে কি কাজ হবে তার রূপরেখা তৈরি করা হয়। বিজেপি সেগুলো ভেস্তে দিয়ে উন্নয়ন থমকে দিতে চাইছে। শ্যামলবাবুর অভিযোগ, এদিন বিজেপির দুষ্কৃতীরা তাঁদের কর্মীদের ব্যাপক মারধর করেছে। তাঁদের দুই কর্মী গুরুতর আহত।