হামলা পালটা হামলা ঘিরে চাপানউতোর বিজেপি-তৃণমূলে

222

নয়ারহাট: ভোট পরবর্তী রাজনৈতিক হিংসার ঘটনায় শনিবার দফায় দফায় উত্তেজনা ছড়াল মাথাভাঙ্গা-১ ব্লকের নয়ারহাট গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায়। নয়ারহাটের পানিগ্রামে ৫/৩৯ নম্বর বুথে তৃণমূল কর্মী রবীন্দ্র বর্মনকে মারধর করার অভিযোগ উঠেছে বিজেপির বুথ সভাপতি বিপিন বর্মনের বিরুদ্ধে। অপরদিকে, ওই বিজেপি নেতার বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটপাট চালানোর অভিযোগ উঠেছে শাসকদলের বিরুদ্ধে। মারধরের ঘটনায় জখম হয়েছেন তৃণমূল কর্মী রবীন্দ্র বর্মন। অভিযুক্ত বিজেপি নেতার নামে মাথাভাঙ্গা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

ঘটনাস্থলে পৌঁছোয় নয়ারহাট ক্যাম্পের পুলিশ। পৌঁছোন মাথাভাঙ্গা থানার আইসি বিনোদ গজমেরও। পুলিশি তৎপরতায় দ্রুত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে। পুলিশ জানিয়েছে, বর্তমানে এলাকা শান্তিপূর্ণ রয়েছে। এলাকায় পিকেট বসানো হয়েছে। টহলদারিও চালানো হচ্ছে।

- Advertisement -

অভিযোগ, গত লোকসভা ভোটের পর বিজেপি নেতা বিপিন বর্মন তৃণমূল কর্মী রবীন্দ্র বর্মনের ভাইয়ের কাছ থেকে ২৫ হাজার টাকা তোলা আদায় করেছিলেন। এদিন সকালে ওই ২৫ হাজার টাকা ফেরত চাইতে বিপিন বর্মনের বাড়িতে গেলে রবীন্দ্র বর্মনকে মারধর করা হয়। ঘটনার কথা জানাজানি হতেই পালটা প্রতিরোধ গড়ে তোলে তৃণমূল। ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয় বিজেপি নেতার বাড়িতে। পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয়।

তৃণমূল কর্মী রবীন্দ্র বর্মন জানান, ২৫ হাজার টাকা ফেরত চাইতেই বিপিন তাঁর ওপর চড়াও হন। তাঁকে বেধড়ক মারধর করা হয়। কোনওরকমে প্রাণে বেঁচে ফিরেছেন তিনি। বাধ্য হয়ে পুলিশের দ্বারস্থও হয়েছেন। যদিও তোলাবাজি ও মারধরের অভিযোগ অস্বীকার করে পালটা বিপিন বর্মন জানান, এবারের বিধানসভা ভোটের পর তৃণমূলের লোকজনই তাঁর কাছ থেকে এক লক্ষ টাকা দাবি করেছিল। তা দিতে চাইনি বলেই তাঁর বাড়িতে ভাঙচুর ও লুটপাট চালানো হয়। বিজেপির ১০ নম্বর মণ্ডল সভাপতি লক্ষ্মীকান্ত বর্মনও জানান, বিপিন এক লক্ষ টাকা দিতে পারেননি বলে তৃণমূলের লোকজন তাঁর বাড়ি ভাঙচুর করেছে।

যদিও তৃণমূল নেতা মহেন্দ্রনাথ বর্মন ও ইন্দ্রজিৎ বসুনিয়ার দাবি, তৃণমূলের কেউ ভাঙচুরের ঘটনায় যুক্ত নন। বিজেপির বুথ সভাপতির কাছ থেকে এক লক্ষ টাকা চাওয়ার অভিযোগও সম্পূর্ণ মিথ্যা। বিপিন বর্মন তাঁদের দলের প্রবীণ কর্মীকে মারধর করায় এলাকার মানুষ ক্ষোভে ফেটে পড়েন। তাঁর বাড়িতে ভাঙচুরের ঘটনা সেই ক্ষোভেরই বহিঃপ্রকাশ। এদিকে, বিজেপির কোচবিহার জেলা আহ্বায়ক অভিজিৎ বর্মন হুঁশিয়ারির সুরে জানান, নয়ারহাটে দলের বুথ সভাপতির বাড়িতে হামলার ঘটনায় পুলিশ উপযুক্ত ব্যবস্থা না নিলে দলীয়ভাবে প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে।