রাস্তা আটকে টানা বিক্ষোভে তৃণমূল, বেনজির ভোগান্তি মানুষের

118

নকশালবাড়ি: রাজ্য সড়ক আটকে নকশালবাড়িতে বিক্ষোভ দেখাল তৃণমূল। বুধবার নকশালবাড়ি ২ নম্বর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষের বিভিন্ন দাবিদাওয়া নিয়ে বিডিও অফিসের সামনে একটি বিক্ষোভ মিছিল ও সভার আয়োজন করা হয়। এই কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে নকশালবাড়ি পানিট্যাঙ্কি রাজ্য সড়ক দীর্ঘক্ষণ ধরে আটকে দেওয়া হয়। প্রায় শতাধিক তৃণমূল কর্মী সমর্থক নকশালবাড়ি বিডিও অফিসের সামনে রাস্তা আটকে বিক্ষোভ দেখান। এতে সমস্ত যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। সব গাড়িকে এশিয়ান হাইওয়ে টু দিয়ে ঘুরিয়ে দেওয়া হয়। মিছিলে সাধারণ মানুষকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য এদিন কোনও পুলিশ মোতায়েন করা হয়নি। ফলে বাসিন্দারা এলোমেলো ভাবে রাস্তার উপর বসে স্থানীয় প্রশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। নকশালবাড়ির বিডিও অরিন্দম মন্ডল জানান এদিন দুটি মিছিল হয়, যার মধ্যে ব্লকে ডেপুটেশন দেওয়ার কর্মসূচিতে প্রশাসনিক অনুমতি দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু আরেকটি মিছিলের অনুমতি ছিল না।

নকশালবাড়ি থানার ওসি ইফতিকার উল হাসান জানান, মিছিলের বিষয়টি তাঁর জানা নেই। এদিন মিছিলটি বিডিও অফিসের সামনে পৌঁছতেই আটকে দেওয়া হয়। ফলে মিছিলে থাকা মহিলারা রাস্তার উপর বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন। মিছিল থেকে তৃণমূল কংগ্রেসের ১০ জনের একটি প্রতিনিধি দল বিডিও অরিন্দম মন্ডলের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। তৃণমূল কংগ্রেসের নকশালবাড়ি ব্লকের পক্ষ থেকে বিডিও অফিসের সামনে একটি মঞ্চ তৈরি করা হয়েছিল। সেখান থেকে ভাষণ দেন ব্লক সভাপতি পৃথ্বীশ রায়, জেলার সহ সভাপতি অমর সিনহা সহ অন্যান্য নেতারা। মিছিলে উপস্থিত তৃণমূল কংগ্রেসের মণিরাম গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রাক্তন উপপ্রধান গৌতম ঘোষ জানান, দূরদূরান্ত থেকে দলের পাঠানো ১৫ টি বাসে করে মানুষ মিছিলে যোগ দিতে আসেন। এতো বড় মিছিল নিয়্ন্ত্রণ করা তাঁদের পক্ষে সম্ভব ছিল না। দলের পক্ষ থেকে পুলিশের অনুমতি না নেওয়ায় ভুল স্বীকার করেন তিনি।

- Advertisement -