ফের এনআইএ জিজ্ঞাসাবাদের মুখে এই তৃণমূল প্রার্থী

119

মুর্শিদাবাদ: বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিপদ বাড়তে চলেছে সুতি বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী ইমানি বিশ্বাসের। গত ১৭ ফেব্রুয়ারি সুতি-নিমতিতা স্টেশনে রাজ্যের শ্রম দপ্তরের প্রতিমন্ত্রী জাকির হোসেনের ওপর বোমা হামলার ঘটনায় সুতির তৃণমূল প্রার্থীকে ফের তলব করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ। ইতিমধ্যে কলকাতায় এনআইএ দপ্তরে একবার হাজিরা দিয়েছেন ইমানি। সূত্রের খবর, মঙ্গলবার এনআইএ দপ্তরে আবারও হাজিরা দিতে এসেছেন এই তৃণমূল প্রার্থী। এরই মধ্যে সুতিতে তৃণমূলের প্রার্থী বদলের জল্পনা তীব্র হচ্ছে।

গত ১৭ ফেব্রুয়ারি কলকাতা আসার জন্য নিমতিতা স্টেশন থেকে ট্রেন ধরতে যাওয়ার সময় ২ নম্বর প্ল্যাটফর্মে বোমা বিস্ফোরণের ঘটনায় গুরুতর আহত হন মন্ত্রী সহ প্রায় ২২ জন। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে প্রাথমিকভাবে ‘সিট’ তদন্ত শুরু করে এবং সিআইডির হাতে গ্রেপ্তার হয় আবু সামাদ এবং সাইদুল ইসলাম নামে দুই ব্যক্তি। পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের নির্দেশে গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করে এনআইএ। মামলার তদন্তভার হাতে নেওয়ার পর এনআইএ-র গোয়েন্দারা একদিকে যেমন বিস্ফোরণস্থল ঘুরে দেখেন তার পাশাপাশি এলাকার একাধিক মানুষের সঙ্গে কথা বলে বিভিন্ন সূত্র হাতে পান।

- Advertisement -

ফের এনআইএ জিজ্ঞাসাবাদের মুখে এই তৃণমূল প্রার্থী| Uttarbanga Sambad | Latest Bengali News | বাংলা সংবাদ, বাংলা খবর | Live Breaking News North Bengal | COVID-19 Latest Report From Northbengal West Bengal India

এনআইএ সূত্রের খবর, গোরু পাচার এবং ব্যবসায়িক কারণে ইমানির সঙ্গে মন্ত্রী জাকিরের দীর্ঘদিনের বিবাদ ছিল। সেকারণে দুজন একই রাজনৈতিক দলের সদস্য হলেও দুজনের বৈরিতা এলাকাতে কারও অজানা ছিল না। সূত্রের খবর, নিমতিতা বিস্ফোরণের ঘটনায় যে দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে তাদের মধ্যে একজনকে বিস্ফোরণের কিছুদিন আগেও ইমানির বাড়ি এবং অফিসে নিয়মিত দেখা যেত।

এনআইএ-র গোয়েন্দারা ইতিমধ্যে ইমানির বাড়ির আশপাশে লাগানো এবং তাঁর বাড়ি ও অফিসে লাগানো সিসিটিভি-র ফুটেজ খতিয়ে দেখছেন। সূত্রের খবর, ইমানির মোবাইল ফোন কল রেকর্ড খতিয়ে দেখে এনআইএ বেশ কিছু সন্দিগ্ধ নম্বর পেয়েছে। সূত্রের আরও দাবি, এনআইএ-র প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ইমানি বেশ কিছু প্রশ্নের উত্তর হয় এড়িয়ে গিয়েছেন অথবা উত্তর দিতে পারেননি।

সূত্রের খবর, ভোটের প্রচারের মধ্যে বারবার এনআইএ দপ্তরে ডাক পড়াতে খুবই বিরক্ত ইমানি। কিন্তু গ্রেপ্তারি এড়াতে বারবার ভোট প্রচার বন্ধ রেখে রাতের অন্ধকারে ছুটে আসছেন কলকাতা। গোটা বিষয়টি নিয়ে তৃণমূল প্রার্থীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোনও উত্তর দিতে চাননি।