প্রচেষ্টা প্রকল্প নিয়ে প্রশ্নের মুখে তৃণমূল

170

ফালাকাটা: ফালাকাটায় শ্রমিক ভোট ধরে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেস। কিন্তু চলতি বছরের শুরুতে রাজ্য সরকার ঘোষিত শ্রমিকদের জন্য প্রচেষ্টা প্রকল্প নিয়ে প্রশ্নের মুখে পড়ছেন তৃণমূল নেতারা। এনিয়ে তৃণমূলের সমালোচনায় মুখর হয়ে উঠেছে বিজেপিও। এই পরিস্থিতিতে বিনামূল্যে সামাজিক সুরক্ষা যোজনা নিয়ে ব্যাপক প্রচারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে শাসকদলের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসি।

সূত্রের খবর, সরকারিভাবে এই যোজনার কার্ড করলেই অসংগঠিত ও পরিবহণ ক্ষেত্রের শ্রমিকরা প্রতিমাসে টাকা পাওয়ার পাশাপাশি নিজের পরিবারের জন্য বহু সুযোগ-সুবিধা পাবেন। এমনকি শ্রমিক পরিবারের সন্তানদের শিক্ষার ক্ষেত্রেও নানারকম আর্থিক সহায়তার সুবিধা রয়েছে এই প্রকল্পে। তাই ভোটের আগে এই সামাজিক সুরক্ষা যোজনা নিয়ে প্রচার চালাচ্ছে শাসকদল। কিন্তু এই প্রকল্পকেও ভোটের চমক বলে দাবি করেছেন বিরোধীরা।

- Advertisement -

ফালাকাটা শহর সহ গোটা ব্লকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে শ্রমিক শ্রেণির মানুষের সংখ্যা কয়েক হাজার। পরিবহণ কর্মী থেকে শুরু করে অসংগঠিত ক্ষেত্রে নির্মাণ শ্রমিক, মুটে-মজদুর, দোকান কর্মচারী, স্বর্ণশিল্পী, রেলের হকার সহ বহু শ্রমিক রয়েছেন এই ব্লকে। এই শ্রমিকদের নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের আইএনটিটিইউসির ৫২টি ইউনিট কমিটি রয়েছে। কিন্তু এখন তৃণমূলের বিরুদ্ধে সংঘবদ্ধ হচ্ছে ভারতীয় মজদুর সংঘ। তাই আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে শ্রমিক ভোট ধরে রাখাটা শাসকদলের কাছে চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। এজন্য সামাজিক সুরক্ষা যোজনা নিয়ে প্রচার চালাচ্ছে তৃণমূল।

ফালাকাটা ব্লক প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, অসংগঠিত ও পরিবহণ শ্রমিকদের জন্য সামাজিক সুরক্ষা যোজনার কার্ড করতে হলে আগে কার্ড প্রতি সরকার প্রতিমাসে ভরতুকি দিত ৩০ টাকা। আর ২৫ টাকা দিতে হত উপভোক্তাকে। এখন বিনামূল্যে করা হচ্ছে। পুরো ৫৫ টাকাই রাজ্য সরকার দিচ্ছে। এজন্য উপভোক্তাকে এখন আর কোনও টাকা জমা দিতে হচ্ছে না। ব্লক অফিসের পাশাপাশি ১২টি গ্রাম পঞ্চায়েত অফিসে এই যোজনার জন্য আবেদন জমা চলছে। অনলাইনের পাশাপাশি শ্রমিকরা অফলাইনেও আবেদন করার সুযোগ পাচ্ছেন। এই প্রকল্পে উপভোক্তা প্রতি মাসে ৫৫ টাকা পাবেন। ১৮ থেকে ৬০ বছয় বয়সী শ্রমিকরাই এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হতে পারবেন। এছাড়াও মেয়াদ পূর্ণ হলে উপভোক্তা এককালীন আড়াই লক্ষ টাকা পাবেন। এছাড়া শ্রমিকদের সাধারণ চিকিৎসার ক্ষেত্রে ২০ হাজার টাকা, শল্য চিকিৎসার ক্ষেত্রে ৬০ হাজার টাকা, দুর্ঘটনার কারণে পুরোপুরি অক্ষম হলে ২ লক্ষ টাকা, স্বাভাবিক মৃত্যুতে ৫০ হাজার টাকা উপভোক্তা শ্রমিক পাবেন। আবার শিক্ষাক্ষেত্রে শ্রমিক পরিবারের সন্তানদের জন্যও আর্থিক সুবিধা রয়েছে। একাদশ শ্রেণিতে পাঠরত শ্রমিক সন্তান চার হাজার টাকা, দ্বাদশ শ্রেণিতে হলে পাঁচ হাজার টাকা, স্নাতক স্তরে ৬ হাজার টাকা, স্নাতকোত্তর স্তরে ১০ হাজার টাকা করে শ্রমিক পরিবারের সন্তানরা পাবে। আবার দুটি কন্যা সন্তানকে কলেজে পড়া শেষ করার জন্য ২৫ হাজার টাকা আর্থিক সহযোগিতাও করা হবে এই প্রকল্পের মাধ্যমে।

আইএনটিটিইউসির ফালাকাটা ব্লক নেতা অশোক সাহা বলেন, ‘ফালাকাটায় প্রতি বছর এই প্রকল্পে লক্ষ লক্ষ টাকা পাচ্ছেন উপভোক্তারা। এবার বিনামূল্যে এই প্রকল্পের আবেদন জমা হচ্ছে। আমরাও সাংগঠনিকভাবে প্রকল্পের কথা প্রচার করছি।’ এক টোটোচালক অভিজিৎ ঘোষ বলেন, ‘এই প্রকল্পের অন্তর্ভুক্ত হতে পারলে উপকৃত হব।’

ফালাকাটা টোটো ইউনিয়ন তথা বেসরকারি মোটর পরিবহণ কর্মী ইউনিয়নের সম্পাদক অনুপ পোদ্দার বলেন, ‘অনেকেই এই যোজনার আওতায় রয়েছেন। বাকি কর্মীদেরও এর অন্তর্ভুক্ত হওয়ার জন্য আবেদন করা হচ্ছে।’ তবে ভারতীয় মজদুর সংঘের ব্লক সম্পাদক রতন সাহা বলেন, ‘এর আগে প্রচেষ্টা প্রকল্পের টাকা শ্রমিকরা পাননি। এখন ভোটের আগে সামাজিক সুরক্ষা যোজনার প্রচার চলছে। এটাও ভোটের চমক। আসলে এই সরকার শ্রমিক দরদি নয়।’ তবে প্রচেষ্টা প্রকল্পের টাকা ফালাকাটার অনেক শ্রমিকই পেয়েছেন বলে পালটা দাবি করেন আইএনটিটিইউসির ব্লক নেতা অশোক সাহা।