জন বারলা, সৌমিত্র খাঁর বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের তৃণমূলের

292

বীরপাড়া: পৃথক রাজ্য নিয়ে আলিপুরদুয়ারের সাংসদ জন বারলার মন্তব্য ঘিরে রাজনৈতিক রেষারেষি বাড়ছে বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে। কয়েকদিন ধরে জেলাজুড়ে সাংসদ জন বারলার কুশপুতুল দাহ, বিক্ষোভ প্রদর্শনের মতো কর্মসূচি পালন করে চলেছে তৃণমূল। বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁর মন্তব্য এতে আগুনে ঘৃতাহুতির কাজ করেছে। মঙ্গলবার আলিপুরদুয়ার জেলার মাদারিহাট ও বীরপাড়া থানা দু’টি অভিযোগ দায়ের করেন তৃণমূল যুব’র মাদারিহাট বীরপাড়া ব্লক কমিটির সভাপতি বিশাল গুরুং। জন বারলার বিরুদ্ধে ওই এফআইআরগুলিতে শুধু অস্থির পরিস্থিতিই নয়, রীতিমতো দাঙ্গা তৈরি করার মতো প্ররোচনামূলক মন্তব্য করার অভিযোগ তোলা হয়েছে। বিশাল গুরুংয়ের অভিযোগ, আলিপুরদুয়ারের সাংসদের মন্তব্য একটি শ্রেণির সঙ্গে আরেকটি শ্রেণির শত্রুতা তৈরি করবে। জঙ্গল মহলকে কেন্দ্র করে বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খাঁর মন্তব্য প্ররোচনামূলক বলেও অভিযোগ দায়ের করেছেন বিশাল।

তৃণমূল বরাবরই পৃথক রাজ্যের বিরোধিতা করে এসেছে। কিন্তু এবারের বিধানসভা নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হওয়ার পরপরই উত্তরবঙ্গকে আলাদা রাজ্য বা কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল ঘোষণার দাবি উঠেছে। সম্প্রতি আলিপুরদুয়ারে সাংসদ জন বারলা এব্যাপারে মুখ খোলায় কোমর বেঁধে পৃথক রাজ্যের বিরোধিতা করতে তৃণমূল পথে নেমেছে। তৃণমূলের অভিযোগ, রাজ্যে ক্ষমতা দখল করতে ব্যর্থ হওয়ায় প্রতিশোধের মানসিকতা নিয়ে রাজ্যটাকেই টুকরো টুকরো করার চক্রান্ত শুরু করেছে বিজেপি। যদিও ওই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে উড়িয়ে দিয়েছে বিজেপি। মঙ্গলবার অভিযোগ দায়ের হওয়ার পর সাংসদ জন বারলাকে ফোন করা হয়। তবে তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তাই তাঁর বক্তব্য জানা যায়নি।

- Advertisement -