রাজ্যভাগ হতে দেব না, হুংকার তৃণমূল নেতার

235

বক্সিরহাট: গোষ্ঠী কোন্দলে জর্জরিত তুফানগঞ্জ ২ ব্লকে দলকে ঐক্যের বার্তা দিলেন তৃণমূল জেলা সভাপতি গিরীন্দ্রনাথ বর্মন। তৃণমূলের জেলা সভাপতি নির্বাচিত হওয়ার পর শুক্রবার তিনি তুফানগঞ্জ ২ ব্লকের হরিপুরে মনীষী পঞ্চানন বর্মার মূর্তিতে মাল্যদান করে দলীয় কর্মীদের উদ্দেশে এই বার্তা দেন।

এদিন হরিপুর চৌপথিতে তৃণমূলের তুফানগঞ্জ ২ ব্লক কমিটির উদ্যোগে সংবর্ধনা সভার আয়োজন করা হয়। সেখানে দলের নবনির্বাচিত জেলা সভাপতি গিরীন্দ্রনাথ বর্মন ও উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ নিগমের নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান পার্থপ্রতিম রায়কে সম্বর্ধনা দেওয়া হয়। সেখানে বক্তৃতা দিতে গিয়ে গিরীন্দ্রনাথ বর্মন জানান, তিনি রাজনৈতিক নেতা হিসেবে নন একজন পঞ্চানন অনুরাগী হিসেবেই এদিন এসেছেন। তাঁর কথায়, কোচবিহার জেলায় তৃণমূলে কোনও গোষ্ঠী কোন্দল নেই। ব্লকের সমস্ত নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘সবাই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনুগামী হন। কেউ কোনও দাদার অনুগামী হবেন না। বিচ্ছিন্নতাবাদীরা রাজ্যকে ভাগ করতে চাইছে। দেশের স্বাধীনতাকে নষ্ট করতে চাইছে। কিন্তু আমরা তা হতে দেব না। তৃণমূলনেত্রী আমাকে পঞ্চানন অনুরাগী হিসেবে দলকে শক্তিশালী ঐক্যবদ্ধ করতে দায়িত্ব দিয়েছেন। আর পঞ্চানন বর্মা অরাজবংশীদের সহযোগিতায় রাজবংশী ও সাধারণ মানুষের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলন করেছিলেন। তাই তিনি সবার কাছে আহ্বান জানান ঐক্যবদ্ধভাবে থাকতে। গিরীন্দ্রনাথ বর্মনের কথায়, ‘উত্তরবঙ্গ ভাগ নয়, অভাব থাকলে তা পূরণ করার কথা বলব। উন্নয়ন করার দাবি জানাব। কিন্তু কোনওভাবেই রাজ্য ভাগ হতে দেওয়া যাবে না।’ তিনি বলেন, ‘বিচ্ছিন্নতাবাদী বিজেপিকে দেশ থেকে হঠাতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সহযোগিতা করতে হবে।

- Advertisement -

এদিকে, পার্থপ্রতিম রায় বলেন, ‘আগামী পঞ্চায়েত, পুরসভা ও লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে শূন্য করতে ও জেলায় দল পরিচালনা করতে সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে দাদা গিরীন্দ্রনাথ বর্মনের পাশে থেকে দলকে এগিয়ে নিয়ে যাব। নেত্রীর হাতকে শক্তিশালী করব। পঞ্চানন বর্মা পাদদেশ থেকে সবাই এই প্রতিজ্ঞা করছি।’

এদিন সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষক তথা দলের জেলা সহ সভাপতি নিরঞ্জন দত্ত, কোচবিহার জেলা পরিষদের সভাধিপতি পুষ্পিতা ডাকুয়া, দলের জেলা মুখপাত্র শিবপদ পাল, তুফানগঞ্জ ২ ব্লক সভাপতি ধনেশ্বর বর্মন সহ আরও অনেকে।