শীতলকুচি, ১২ জুনঃ মঙ্গলবার রাতে শীতলকুচি ব্লকের ভাঐরথানা গ্রাম পঞ্চায়েতের সাধুরহাট এলাকায় এক তৃণমূল নেতার বাড়িতে  ভাঙচুর ও বোমা মারার অভিযোগ উঠল বিজেপির বিরুদ্ধে। ঘটনায় আহত হয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতা শৈলেন প্রামাণিক। তাঁর পিঠে ও পায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কোপানো হয়েছে বলে অভিযোগ। মাথাভাঙ্গা মহকুমা হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছে তিনি। এই ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শৈলেনবাবু জানান, গতকাল রাতে বিজেপি আশ্রীত দুষ্কৃতীরা ধারালো অস্ত্র নিয়ে তাঁর বাড়িতে হামলা করে এবং বাড়ি লক্ষ্য করে বোমা ছোঁড়ে বলে অভিযোগ। ঘর বাড়ি ভেঙে সমস্ত জিনিসপত্র লুঠ করে নিয়ে যায়। এমনকি এই বিষয়ে থানায় অভিযোগ না করারও হুমকি দেওয়া হয়। তবে তৃণমূলের এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলে দাবি করেন স্থানীয় বিজেপি নেতারা। শীতলকুচি উত্তর মন্ডলের বিজেপি সভাপতি মহেন্দ্র বর্মন বলেন, ওই তৃণমূল কর্মী স্থানীয়দের কাছ থেকে সরকারি সুবিধা দেওয়ার নাম করে টাকা তুলেছিল। এদিন স্থানীয়রা তাঁর কাছে টাকা ফেরৎ চাইতে গেলে বচসা হয় এবং সেখানে ঝামেলা সৃষ্টি হয়। এই ঘটনায় বিজেপির কেউ জড়িত নয়। তবে এলাকার তৃণমূলের বিধায়ক হিতেন বর্মন বলেন, বিজেপি চক্রান্ত করে পরিকল্পনা মাফিক এই ধরনের ঘটনা ঘটাচ্ছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।