ফালাকাটায় সংখ্যালঘু ভোটে নজর তৃণমূলের

495
ফালাকাটায় আলিপুরদুয়ার জেলা তৃণমূল কংগ্রেসের সংখ্যালঘু সেলের বৈঠক।

ফালাকাটা: ফালাকাটার জেতা আসন দখলে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছে তৃণমূল কংগ্রেস। এজন্য মাদার তৃণমূলের পাশাপাশি বিভিন্ন শাখা সংগঠনও উপনির্বাচনের রণকৌশল নিয়ে বৈঠক শুরু করেছে। সূত্রের খবর, ফালাকাটায় সংখ্যালঘু ভোটের দিকে বিশেষ নজর দিচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। কারণ, এই বিধানসভা কেন্দ্রে প্রায় ১৯ শতাংশ সংখ্যালঘু ভোট রয়েছে। এজন্য তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সংখ্যালঘু সেল ফালাকাটায় ঝাপিয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার এই শাখা সংগঠনের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক তথা উত্তরবঙ্গের পাঁচ জেলার বিশেষ দায়িত্বপ্রাপ্ত গোলাম নবি আজাদের নেতৃত্বে ফালাকাটায় একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়। সূত্রের খবর, উপনির্বাচনের রণকৌশল নিয়েই ওই বৈঠকে আলোচনা হয়।

ফালাকাটা বিধানসভা কেন্দ্রের বেশ কিছু গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় সংখ্যালঘু ভোট রয়েছে। শালকুমার, দেওগাঁও, ময়রাডাঙ্গা, ধনীরামপুর-১, ধনীরামপুর-২, ফালাকাটা-১, ফালাকাটা-২ ও পূর্ব কাঁঠালবাড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় সংখ্যালঘু ভোট আছে। গত লোকসভা নির্বাচনে ফালাকাটা বিধানসভা কেন্দ্রে বিজেপির থেকে ২৭ হাজার ভোট কম পায় তৃণমূল। সূত্রের খবর, অধিকাংশ সংখ্যালঘু ভোট এখনও তৃণমূলের সঙ্গেই রয়েছে। এই ভোট ব্যাংকে যাতে বিজেপি থাবা বসাতে না পারে সেজন্য তৃণমূলের সংখ্যালঘু সেল সক্রিয় হয়ে উঠেছে। এজন্য এদিন সংখ্যালঘুর সেলের জেলা স্তরের বৈঠক হয় ফালাকাটায়। এই বৈঠকে আলিপুরদুয়ার জেলার ৬টি ব্লকের সংখ্যালঘু সেলের ব্লক সভাপতিরা উপস্থিত ছিলেন। বৈঠকে উত্তরবঙ্গের বিশেষ দায়িত্বপ্রাপ্ত সংখ্যালঘু সেলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক গোলাম নবি আজাদকে সংবর্ধনাও দেওয়া হয়। এছাড়া বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের জেলা সভাপতি আব্দুল মান্নান, ফালাকাটা ব্লক সভাপতি আলতাফ হোসেন, কিষান ও খেতমজদুর তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি প্রসেনজিৎ রায়, তৃণমূলের ব্লক সাধারণ সম্পাদক সুভাষ রায়, রতন সরকার, তৃণমূল যুবর ব্লক সভাপতি সঞ্জয় দাস প্রমুখ।

- Advertisement -

উপনির্বাচনকে সামনে রেখে কীভাবে সংখ্যালঘু সেল কাজ করবে, জনসংযোগ কীভাবে বাড়াতে হবে এবং সংখ্যালঘু ভোট ব্যাংক ধরে রাখার নানা কৌশল নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে। সংগঠনের জেলা সভাপতি আব্দুল মান্নান বলেন, ‘শুধু ফালাকাটা নয়, এই উপনির্বাচনের জন্য জেলার অন্যান্য ব্লকের সংখ্যালঘু সেলের নেতারাও কাজ করবেন। এজন্যই জেলা স্তরের বৈঠক ফালাকাটায় হয়েছে।’ সংগঠনের উত্তরবঙ্গের বিশেষ দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতা গোলাম নবি আজাদ বলেন, ‘জেলা সভাপতির সঙ্গে কথা বলে উপনির্বাচনের জন্য রণকৌশল ঠিক করা হয়েছে। এজন্য ফালাকাটার প্রতিটি অঞ্চল ও বুথ ধরে ধরে সাংগঠনিক কাজে জোর দেওয়া হচ্ছে। দলের নির্দেশে আমিও ফালাকাটার জন্য কাজ করব।’